শুক্রবার, মে ১৪
শীর্ষ সংবাদ

Tag: মিয়ানমার

মিয়ানমারে মসজিদে ঢুকে সেনাদের গুলিবর্ষণ, নিহত ১
আন্তর্জাতিক, সাব লিড

মিয়ানমারে মসজিদে ঢুকে সেনাদের গুলিবর্ষণ, নিহত ১

অধিকার ডেস্ক:: মিয়ানমারের মান্দালয়ে একটি মসজিদের ভেতরে ঘুমন্ত মুসলিমদের লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছে সেনাবাহিনী। এতে ২৮ বছরের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। দেশটির সংবাদমাধ্যম মিয়ানমার নাউ এখবর জানিয়েছে। খবরে বলা হয়েছে মাহা অঙমিয়ায় টাউনশিপের সুলে মসজিদে স্থানীয় সময় সকাল দশটার দিকে সেনা সদস্যরা হামলা চালায়। রাতে সেহরি খাওয়ার পর মসজিদে ঘুমাচ্ছিলেন কো তেত নামের ওই ব্যক্তি। মসজিদে ঢুকেই সেনা সদস্যরা গুলিবর্ষণ শুরু করে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। কো তেত নামের ওই ব্যক্তির বুকে গুলি লাগে এবং ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। নিহত কো তেত একটি গাড়ি মেরামতের কারখানায় কাজ করতেন এবং তার পাঁচ বছরের এক ছেলে রয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে পরিবারের সদস্যরা ইসলামি রীতিতে তাকে দাফন করেছেন। এই ঘটনায় এক পঙ্গু ব্যক্তিসহ দুজন আহত হয়েছেন। কো অং নামের ৩৫ বছর বয়সী ব্যক্তি পিঠে গুলিবিদ...
মিয়ানমারের বাগো শহরে ৮০ বিক্ষোভকারীকে হত্যা
আন্তর্জাতিক

মিয়ানমারের বাগো শহরে ৮০ বিক্ষোভকারীকে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মিয়ানমারের বাগো শহরে ৮০ জনেরও বেশি বিক্ষোভকারীকে হত্যা করেছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। নিহতদের লাশ সেনা সদস্যরা নিয়ে গেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা দেশটির গণমাধ্যমকে বলেছেন, সৈন্যরা ভারী অস্ত্র ব্যবহার করছিল এবং নড়াচড়া করে এমন যেকোনো কিছুর ওপরই গুলি চালিয়েছে। বিবিসি বলছে, ক্ষমতা আঁকড়ে থাকার জন্য সামরিক বাহিনী দমন-পীড়নের মাত্রা বাড়িয়েছে। ইয়াঙ্গুন শহরের কাছে বাগো শহরে এই সহিংসতা শুক্রবার ঘটেছে বলে জানা গেছে। কিন্তু গণমাধ্যমের কাছে এই খবর পৌঁছাতে গোটা একদিন লেগেছে। কারণ, শহরের বহু বাসিন্দাকে বাধ্য হয়ে আশপাশের গ্রামে পালিয়ে যেতে হয়েছিল। মনিটরিং গ্রুপ অ্যাসিসটেন্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনারস-এএপিপি বলছে, নিহতের প্রকৃত সংখ্যা অনেক বেশি ছিল। সংবাদ সংস্থা দ্য মিয়ানমার নাউ বিক্ষোভের আয়োজক ইয়ে হুটুটকে উদ্ধৃত করে বলেছে, ‘এটা গণহত্যার মতোই। তারা প্রত...
রাতভর অভিযানে মিয়ানমারে নিহত ৬০, প্যাগোডা ও খেলার মাঠে লাশের স্তুপ
আন্তর্জাতিক, সাব লিড

রাতভর অভিযানে মিয়ানমারে নিহত ৬০, প্যাগোডা ও খেলার মাঠে লাশের স্তুপ

  অধিকার ডেস্ক:: অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারীদের গড়ে তোলা ব্যারিকেড অপসারণ করতে গিয়ে মিয়ানমারের মধ্যাঞ্চলীয় শহর বাগোতে ৬০ জনেরও বেশি মানুষকে হত্যা করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, প্রাচীন এই শহরটির প্যাগোডা ও স্কুলের খেলার মাঠে মরদেহ স্তুপ করে রেখেছে জান্তা সরকারের বাহিনী। মার্কিন সরকারের অর্থায়নে পরিচালিত সংবাদমাধ্যম রেডিও ফ্রি এশিয়ার (আরএফএ) এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, শুক্রবার মিয়ানমারের বাগো শহরে গুলিবৃষ্টি চালিয়েছে পুলিশ ও সেনাবাহিনী। গত ১ ফেব্রুয়ারির সেনা অভ্যুত্থানের বিরোধিতা করতে বাগো শহরের রাস্তায় ব্যারিকেড গড়ে তোলা হয়। প্রায় আড়াই লাখ মানুষের শহরটিতে শুক্রবার সন্ধ্যা নামার আগেই অভিযান শুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাগো শহরের এক বাসিন্দা বলেন, ‘আমাদের মানুষেরা বুঝতে পেরেছিলো তারা (নিরাপত্তা বাহিনী) আসতে পারে। আর এজন্য রাতভর অপেক্ষা...
মিয়ানমারে নিহত ৬০০ ছাড়াল
আন্তর্জাতিক

মিয়ানমারে নিহত ৬০০ ছাড়াল

অধিকার ডেস্ক:: গণতন্ত্র ফেরানোর আন্দোলনে মিয়ানমারে নিহতের সংখ্যা ৬০০ ছাড়িয়ে গেছে বলে জানিয়েছে দেশটির প্রবাসী রাজনীতিবিদদের প্রতিষ্ঠিত সংগঠন এএপিপি। বৃহস্পতিবার আরও ১১ জন মারা যাওয়ার পর এখন পর্যন্ত মোট প্রাণ হারালেন ৬০৯ জন। সপ্তাহখানেক আগে দেশটির প্রত্যন্ত এলাকার বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলি সেনা-বিরোধী বিক্ষোভে দেশের গণতন্ত্রকামী সাধারণ মানুষের পাশে থাকার বার্তা দেয়ার পর মৃতের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে। সেনা-পুলিশের গুলি বর্ষণের বিরুদ্ধে নিজেদের তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র হাতে রুখে দাঁড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছেন বিক্ষোভকারীরা। প্রত্যক্ষদর্শীরা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, সকালের দিকে বিক্ষোভকারীরা যখন মিছিলের জন্য জমায়েত শুরু করছেন, প্রায় ছয়টি ট্রাক ভর্তি সেনা সেখানে হাজির হয়। বিক্ষোভকারীরা গাদাবন্দুক, ছুরি আর বোতল বোমা নিয়ে প্রত্যাঘাত করলে আরও পাঁচ ট্রাক বাহিনী আসে। এর পরেই চলে নির্বিচারে গুলি। সেনা-বিরোধ...
মিয়ানমারে সিএনএন টিম: ক্ষমতা ছাড়ার লক্ষণ নেই জান্তার
আন্তর্জাতিক

মিয়ানমারে সিএনএন টিম: ক্ষমতা ছাড়ার লক্ষণ নেই জান্তার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মিয়ানমারের সাধারণ মানুষ আর সামরিক শাসন চায় না। একারণে দেশটির রাজপথে প্রায় প্রতিদিনই চলছে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভ। দ্রুততম সময়ে গণতান্ত্রিক সরকারের হাতে ক্ষমতা ফিরিয়ে দিতে মিয়ানমারের সেনাশাসকদের ওপর আন্তর্জাতিক চাপও বাড়ছে প্রতিনিয়ত। অথচ এসবে যেন কোনও মাথাব্যাথাই নেই জান্তা সরকারের! তাদের মতে, ‘মিয়ানমারে তো কোনও অভ্যুত্থানই হয়নি’! সম্প্রতি মিয়ানমারের হালচাল দেখতে গিয়েছিল মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের একটি দল। গত ৩১ মার্চ থেকে ৬ এপ্রিল পর্যন্ত দেশটির বৃহত্তম শহর ইয়াঙ্গুন ও রাজধানী নেপিদোতে ছিলেন তারা। সেখানে কথা বলেছেন জান্তা সরকারের মুখপাত্র এবং সাধারণ মানুষজনের সঙ্গে। সফরের আগে মিয়ানমার জান্তা আশ্বস্ত করেছিল, সাংবাদিকদের স্বাধীনভাবে খবর সংগ্রহ করতে দেয়া হবে। তবে যাওয়ার পরে তারা ইয়াঙ্গুনের কোনও হোটেলে থাকতে চাইলেও তাদের নিয়ে যাওয়া হয় দেয়ালঘেরা একটি সামরিক এলাকায়। এরপর খ...
মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে নিহতের সংখ্যা ৫৫০
আন্তর্জাতিক

মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে নিহতের সংখ্যা ৫৫০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মিয়ানমারে আরো বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। রবিবারও সামরিক জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে ছয়জন নিহত হয়। এ নিয়ে দেশটিতে আন্দোলনে প্রাণ গেল ৫৫০ জনের বেশি মানুষের। ছুটির দিনেও উত্তাল ছিল দেশটির বিভিন্ন শহর। এ অবস্থায় জান্তা সরকার প্রধান মিন অং হ্লাইং জানিয়েছেন, সহিংসতা ও বিশৃঙ্খলা প্রতিরোধে সংযত আচরণ করছে নিরাপত্তারক্ষীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে ইন্টারনেট সেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে কোনভাবেই দমানো যাচ্ছে না বিক্ষোভ। এদিকে বিক্ষোভে অংশ নেয়ার অভিযোগে গৃহবন্দি করা দুই অস্ট্রেলীয় নাগরিককে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তবে তাদের দ্রুত মিয়ানমার ত্যাগ করে নিজ দেশে ফিরে যেতে বলা হয়েছে। গত ১ ফেব্রুয়ারি তাতমাদাও নামে পরিচিত মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী দেশটিতে সেনা অভ্যুত্থান ঘটায় এবং প্রেসিডেন্ট উইন মিন্ট ও স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চিসহ রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেপ্তার করে। সাথে সাথে দেশট...
মিয়ানমারে নিহত বিক্ষোভকারীর শেষকৃত্যেও নিরাপত্তা বাহিনীর গুলি
আন্তর্জাতিক

মিয়ানমারে নিহত বিক্ষোভকারীর শেষকৃত্যেও নিরাপত্তা বাহিনীর গুলি

অধিকার ডেস্ক:: সশস্ত্র বাহিনী দিবসে মিয়ানমার জুড়ে সামরিক সরকারবিরোধী বিক্ষোভে নিহত হওয়াদের একজনের শেষকৃত্য অনুষ্ঠানেও গুলি চালিয়েছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। প্রত্যক্ষদর্শীদের উদ্ধৃত করে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, রবিবার (২৮ মার্চ) থায়ে মং মং নামের ওই তরুণ বিক্ষোভকারীর শেষকৃত্য চলার সময় ফাঁকা গুলি ছোড়া হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। গত ১ ফেব্রুয়ারি নির্বাচিত নেত্রী অং সান সু চির সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। এরপর থেকেই দেশটিতে বিক্ষোভ চলছে। বিক্ষোভকারীরা সু চির মুক্তির পাশাপাশি বেসামরিক কর্তৃপক্ষের হাতে ক্ষমতা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন। এসব বিক্ষোভে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ৪০০ জনের কাছাকাছি। শনিবার ছিল মিয়ানমারের সশস্ত্র বাহিনী দিবস। এদিন বিভিন্ন শহরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ১১৪ জন নিহত হয়। এদেরই একজন...
মিয়ানমারে সশস্ত্র দিবসে পুলিশের গুলিতে নিহত ১১৪
আন্তর্জাতিক

মিয়ানমারে সশস্ত্র দিবসে পুলিশের গুলিতে নিহত ১১৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মিয়ানমারে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে শনিবার অন্তত ১১৪ বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো অনেকে। শনিবার দেশটির সশস্ত্র বাহিনী দিবসে এই হতাহতের ঘটনা ঘটলো। স্থানীয় গণমাধ্যম মিয়ানমার নাও জানিয়েছে, মান্দালয়ে, ইয়াঙ্গুন, ইনসেরিন, লাসিও, বাগোসহ বিভিন্ন এলাকায় এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। এর আগে সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষ্যে নেপিদোতে এক অনুষ্ঠানে জান্তা সরকার প্রধান দেশটিতে আবারও নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দেন। তবে নির্বাচনে কোনো নির্দিষ্ট তারিখ জানাননি তিনি। এদিকে, সামরিক জান্তা হত্যা অব্যাহত রাখলে তার জবাব দেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে দেশটির সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো। এর আগে সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষ্যে নেপিদোতে এক অনুষ্ঠানে জান্তা সরকার প্রধান মিন অং হ্লাইং দেশটিতে আবারও নির্বাচন দেয়ার অঙ্গীকার করেন। জান্তা সরকার মিয়ানমারে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে চায় বলেও জানান তিনি। মিয়ানমার...
বিক্ষোভকারীদের হত্যার জন্য গুলি করার কথা স্বীকার জান্তার
আন্তর্জাতিক

বিক্ষোভকারীদের হত্যার জন্য গুলি করার কথা স্বীকার জান্তার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মিয়ানমারের সামরিক জান্তা বিক্ষোভকারীদের হত্যা করার জন্য গুলি করে বলে স্বীকার করেছে। শুক্রবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ও রেডিওতে প্রচার করা এক বিবৃতিতে ছাত্র ও তরুণ শ্রেণির উদ্দেশে বলা হয়, আগের মৃত্যুগুলো থেকে তোমাদের শিক্ষা নেয়া উচিত। তোমরা বুকে পিঠে ও মাথায় গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঝুঁকির মধ্যে রয়েছ। তোমরা বিদেশিদের উস্কানিতে রাস্তায় নেমে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছ। তোমাদের কাছে সরকারের বিরুদ্ধে এ বিক্ষোভকে ‘ভিডিও গেম’ বলে মনে হচ্ছে। খবর ইরাবতী অনলাইনের বিবৃতিতে বলা হয়, প্রিয় বালক-বালিকারা, তোমরা বিভ্রান্ত হয়ো না, কারো উস্কানি কিংবা কারো ভুল পথে পরিচালিত হয়ো না। তরুণ–তরুণীদের পিতামাতাকে হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলা হয়, তারা যেন নিজেদের ছেলেমেয়েদের বিক্ষোভ সমাবেশে যেতে বাধা দেয়। ১ ফেব্রুয়ারি ক্ষমতা দখলের পর থেকে মিয়ানমারের রাস্তায় রাস্তায় জান্তার বিরুদ্ধে মিছিল ও সমাবেশ করছে দেশটির ছাত্র-...
রাতেও মিয়ানমারের রাজপথ ছাড়ছেন না বিক্ষোভকারীরা
আন্তর্জাতিক

রাতেও মিয়ানমারের রাজপথ ছাড়ছেন না বিক্ষোভকারীরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: মিয়ানমারের জান্তাবিরোধীরা রাতেও রাজপথ ছাড়ছেন না। শনিবার রাতেও মোমবাতি জ্বালিয়ে রাজপথে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন তারা। বিক্ষোভ চলাকালে গত কয়েকদিন ব্যাপক প্রাণহানির ঘটনার পরও রাজপথ ছাড়ছেন তা গণতন্ত্রের সমর্থকরা। বিক্ষোভকারীদের ওপর দমন-পীড়ন বন্ধের জন্য সামরিক জান্তাদের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ ক্রমশই বাড়ছে। শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদে প্রাণঘাতী অস্ত্র ব্যবহার বন্ধে পশ্চিমাদের পাশাপাশি এবার সোচ্চার হয়েছে আসিয়ান প্রতিবেশীরাও। খবর রয়টার্সের শনিবার বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে অন্তত চারজন নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে চলমান বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত ২৪৭ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে অ্যাসিস্ট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিকাল প্রিজনার্স (এএপিপি) নামে একটি অধিকার সংগঠন। দেশটির প্রধান শহর ইয়াঙ্গুন থেকে উত্তরের কাচিন রাজ্যের ক্ষুদ্র সম্প্রদায় এবং দক্ষিণের শহর কাওথাংয়ে শনিবার রাতে প্রায় ২০টি...