"> নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে উত্তাল পশ্চিমবঙ্গ, ট্রেনে-বাসে আগুন, বন্ধ ইন্টারনেট সেবা
 

নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে উত্তাল পশ্চিমবঙ্গ, ট্রেনে-বাসে আগুন, বন্ধ ইন্টারনেট সেবা

Pronob paul 3:15 pm ব্রেকিং নিউজ,
Home  »  আন্তর্জাতিকব্রেকিং নিউজ   »   নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে উত্তাল পশ্চিমবঙ্গ, ট্রেনে-বাসে আগুন, বন্ধ ইন্টারনেট সেবা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে ভারতের আসাম, মেঘালয় রাজ্যের পাশাপাশি উত্তাল পশ্চিমবঙ্গও। শনিবার রাজ্যটির বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ ও রেল-সড়ক অবরোধ করা হয়েছে। পাশাপাশি আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে পাঁচটি ট্রেনসহ ১৫টি বাসে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ইন্টারনেট সেবা নিয়ন্ত্রণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

রাজ্যসরকারের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, মালদহ, মুর্শিদাবাদ, উত্তর দিনাজপুর, হাওড়ায় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট সেবা। এছাড়া বারাসাত মহকুমা, বসিরহাট মহকুমা, বারুইপুর ও ক্যানিং মহকুমাতেও বন্ধ করা হচ্ছে ইন্টারনেট।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহিংসতা বন্ধ করে সবাইকে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের আহ্বান জানিয়েছেন। খবর এনডিটিভির।

এর আগে নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে উত্তাল হয় উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলো। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের অনুমোদন দেওয়ার পর থেকেই ক্রমশ জটিল হতে শুরু করে পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতিও।

শুক্রবার থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে সড়ক ও রেল অবরোধ করা হয়। আন্দোলন অব্যাহত থাকে শনিবারও।

আসামের পরিস্থিতি আরও জটিল আকার ধারণ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গুয়াহাটিতে জারি করা হয়েছে কারফিউ।

এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের মানুষকে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ-আন্দোলন করার বিষয়ে আবেদন জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন, ‘ভুল বোঝাবুঝি তৈরি করবেন না, উত্তেজনা বা আতঙ্ক ছড়াবেন না, সাম্প্রদায়িক উস্কানিতে পা দেবেন না।’

কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনকে উপেক্ষা করেই নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে গোটা রাজ্য।

মুর্শিদাবাদ জেলার পোড়াডাঙা, জঙ্গিপুর এবং ফারাক্কা স্টেশন এবং হাওড়া জেলার দক্ষিণ পূর্ব রেলপথে বাউরিয়া ও নলপুর স্টেশনগুলিতে দফায় দফায় রেল অবরোধ করে বিক্ষোভকারীরা। পাশাপাশি তারা আগুন লাগিয়ে দেয় রাজ্য পরিবহন দফতরের অধীনস্থ তিনটি সরকারিসহ ১৫টি বাসে।