শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৭
শীর্ষ সংবাদ

১০ ঘণ্টা পর উপাচার্যকে ছাড়লেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহানের দেওয়া অ্যাডহকে ‘অবৈধ’ নিয়োগপ্রাপ্তরা যোগদানের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে অবরুদ্ধ করার ১০ ঘণ্টা পর ভারপ্রাপ্ত উপাচার্যকে ছেড়ে দিয়েছেন।

সোমবার সকালে উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে উপাচার্যসহ প্রশাসনের দুয়েকজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে তারা অবরুদ্ধ করে রাখেন। পরে রাত ৮টার দিকে তারা অবরোধ তুলে নিলে উপাচার্য ছাড়া পান।

তবে এ বিষয়ে উপাচার্যকে ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। ছাত্রলীগ নেতারাও কেউ অবরোধ প্রত্যাহারের বিষয়ে স্পষ্ট মন্তব্য করেননি।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকাল ১১টার দিকে ‘অবৈধ’ নিয়োগপ্রাপ্তরা উপাচার্যের সম্মেলক কক্ষে প্রবেশ করেন। সেখানে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহাসহ বর্তমান প্রশাসনের কর্মকর্তাদের অবরুদ্ধ করে রখেন তারা। অবরুদ্ধকারীদের অধিকাংশই সাবেক ও বর্তমান ছাত্রলীগের নেতাকর্মী।

জানা গেছে, গত ৬ মে সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আবদুস সোবহান মেয়াদের শেষ কার্য দিবসে ১৩৮ জনকে অ্যাডহকে নিয়োগ দিয়ে যান। এদিন সন্ধ্যায় এই নিয়োগকে অবৈধ ঘোষণা করে তদন্ত কমিটি গঠন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। পরে ৮ মে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত নিয়োগে যোগদান সংশ্লিষ্ট সব প্রক্রিয়া স্থগিত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর আগে কর্মস্থলে যোগদানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন নিয়োগপ্রাপ্তরা।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য ও রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান সুমন বলেন, আমরা গত ৬ মে যোগদান করেছি। ক্যাম্পাস খোলায় আমরা নিজ দপ্তরে যোগদান করতে এসেছি। কিন্তু রুটিন দায়িত্বে থাকা উপাচার্য নিয়মবহির্ভূতভাবে যোগদানে স্থগিতাদেশ দিয়েছেন। যদিও তিনি বলছেন মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিয়েছেন, কিন্তু তারা কোনো ডকুমেন্টস দেখাতে পারেন নি। তাই আমরা যোগদানের দাবিতে অবরোধ করেছি। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা কোথাও যাচ্ছি না।

তবে এ বিষয়ে প্রশাসনের কোনো মন্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।


এখানে শেয়ার বোতাম