শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন


রাস্তাঘাট সংস্কারের দাবিতে বরিশালে দেড় সহস্রাধিক নারী-পুরুষের মিছিল

রাস্তাঘাট সংস্কারের দাবিতে বরিশালে দেড় সহস্রাধিক নারী-পুরুষের মিছিল

  • 762
    Shares

বিশাল সমাবেশ, মেয়র বরাবর স্মারকলিপি পেশ

বরিশাল প্রতিনিধি:: অবিলম্বে বরিশালে চলাচলের অযোগ্য সকল ভাঙাচোরা রাস্তাঘাট-খাল-ড্রেন ও খাল সংস্কার করতে হবে, পুনর্বাসন ছাড়া রিক্সা-ব্যাটারি রিক্সা-ইজিবাইক ও হকার উচ্ছেদ করা চলবে না, করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে বকেয়া ফি মওকুফ করে রিক্সাশ্রমিকদের লাইসেন্স নবায়নের সুযোগ দিতে হবে- এই ৩ দফা দাবিতে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল বাসদ বরিশাল জেলা শাখার উদ্যোগে আজ সকাল ১১টায় অশি^নী কুমার হলের সামনে এক বিশাল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বাসদ বরিশাল জেলা আহবায়ক ইমরান হাবিব রুমনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বরিশাল জেলা শাখার সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী, বাসদ নেতা মানিক হাওলাদার, জাহাঙ্গির হোসেন দিদার, মো. হানিফ, বরিশাল রিক্সা-ভ্যান চালক শ্রমিক ইউনিয়ন (২৩২৪) এর সভাপতি দুলাল মল্লিক, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের সানু আক্তার, বানী রানী, সোনারগাঁ টেক্সটাইল শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক নুরুল হক, অলিম্পিক সিমেন্টের মেজবা উদ্দিন, ভ্যান শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি মো. রফিক, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের জেলা সভাপতি সাগর দাস, ছাত্র ফ্রন্ট মহানগর শাখার সভাপতি প্রতিভা রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সুজন, সাইফুল ইসলাম।

ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী বলেন, বরিশালের রাস্তাঘাটের বেহাল দশা, সামান্য বৃষ্টিতেই জলাবদ্ধতা দীর্ঘদিন ধরে জনগনের অসহনীয় দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। গতবছর নভেম্বর মাসে আমরা বরিশালের রাস্তাঘাট, খাল-ড্রেন সংস্কারের দাবিতে দাবিপক্ষ পালন শেষে মেয়রের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছিলাম। কিন্তু তারপরও সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে শহরের ২/১টি প্রধান সড়ক সংস্কার করা হলেও বর্তমানে বরিশালের প্রায় ৯০ শতাংশ রাস্তাই চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। খানা-খন্দে পরিপূর্ণ রাস্তা দিয়ে চলতে গিয়ে জনগনের নাভিশ্বাস উঠে যাচ্ছে, প্রায়শই বিভিন্ন দুর্ঘটনার স্বীকার হচ্ছে। সামান্য বৃষ্টিতেই নগরীর বিভিন্ন রাস্তায় জলাবদ্ধতা তৈরি হচ্ছে। ড্রেন সংস্কার না করায় বিভিন্ন এলাকার মানুষ পানিবন্দী হয়ে অসহনীয় দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। নগরীর ২২টি খাল সংস্কারের অভাবে অধিকাংশই মৃত এবং ময়লার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে, বেদখল হয়ে যাচ্ছে। এই খালগুলো সংস্কার ও পুনরুদ্ধার করা এখন খুবই জরুরী। খাল সংস্কার না হওয়ার ফলে সাম্প্রতিক সময়ে জোয়ারের পানি বেড়ে নগরীর প্রধান সড়ক সদর রোডকেও প্লাবিত করেছে। এই জলাবদ্ধতা নিরসনে বরিশালের খাল পুনরুদ্ধার ও সংস্কার করা অত্যন্ত জরুরী হয়ে দাঁড়িয়েছে। একই সাথে জনগণের চলাচলে অসহনীয় দুর্ভোগ নিরসনে রাস্তাঘাট অতিসত্বর সংস্কার করা প্রয়োজন।

ইমরান হাবিব রুমন বলেন, এই বৈষ্ণিক করোনা দুর্যোগের সময় দেশে-বিদেশে অনেক মানুষ চাকুরিচ্যুত হচ্ছে, কর্মসংস্থান কমছে। ফলে এই দুর্যোগ পরিস্থিতিতে কোনভাবেই মানুষের শেষ সম্বল তার নিজের কর্মসংস্থান রিক্সা, ইজিবাইক বা রাস্তার পাশের ছোট দোকানগুলো উচ্ছেদ করা সমুচিত নয়। বরং এই দুর্যোগের সময় এই হতদরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষদের পাশে আমাদের সকলেরই দাঁড়ানো উচিত। কিন্তু বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে লাইসেন্স নবায়নের কোন উদ্যোগ না থাকায় এই রিক্সা চালকদের কয়েক বছরের নবায়ন ফি বকেয়া পড়ে গেছে। রিক্সার লাইসেন্স নবায়ন করতে গিয়ে শ্রমিকদের কাছ থেকে বিগত কয়েক বছরের সকল বকেয়া আদায়ে চাপ দেয়া হচ্ছে যা এই করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে অনেক রিক্সাশ্রমিকের জন্যই দেয়া সম্ভব নয় এবং এটা বেশ অমানবিকও বটে। এছাড়াও বরিশালের সোনারগাঁ টেক্সটাইল মিলের শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধ না করে দীর্ঘদিন ধরে মিল বন্ধ রাখা হয়েছে এবং অলিম্পিক সিমেন্টের প্রায় শতাধিক শ্রমিককে বকেয়া পরিশোধ না করে অন্যায়ভাবে ছাঁটাই করা হয়েছে। এই শ্রমিক পরিবারগুলো মানবেতর জীবনযাপন করছে। এই সকল বিষয়েও সিটি কর্পোরেশনের কার্যকরী উদ্যোগ প্রত্যাশা করি।

সমাবেশ শেষে লাল পতাকা এবং দাবি সম্বলিত ফেস্টুনসহ প্রায় দেড় সহস্রাধিক নারী-পুরুষের একটি বিশাল মিছিল নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মিছিল শেষে বাসদ আহবায়ক ইমরান হাবিব রুমন এবং সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তীর নেতৃত্বে ৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল সিটি কর্পোরেশনে গিয়ে স্মারকলিপি পেশ করে। মেয়রের অনুপস্থিতিতে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন সিটি কর্পোরেশনের সচিব।





© All rights reserved © 2018 Odhikarbd.Com
ILoveYouZannath