বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:২৫ পূর্বাহ্ন


মারাই গেলেন স্যানিটাইজারের আগুনে দগ্ধ চিকিৎসক রাজিব

মারাই গেলেন স্যানিটাইজারের আগুনে দগ্ধ চিকিৎসক রাজিব

অধিকার ডেস্ক:: রাজধানীর হাতিরপুলে একটি বাসায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার থেকে ধরে যাওয়া আগুনে দগ্ধ চিকিৎসক রাজিব ভট্টাচার্য (৩৬) মারা গেছেন। মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) সকাল সাড়ে ৮টায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত ২১ জুলাই হাতিরপুলের বাসায় দগ্ধ হন চিকিৎসক দম্পতি। রাজিবের শরীরের ৮৭ শতাংশ এবং তার স্ত্রী অনুসূয়া ভট্টাচার্যের ২০ শতাংশ পুড়ে যায়। রাজিব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) নিউরো সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক এবং তার স্ত্রী অনুসূয়া বেসরকারি একটি মেডিক্যালের চিকিৎসক।

মৃত্যুর বিষয়ে শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, ডা. রাজিবকে ভর্তি হবার পর থেকেই নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) লাইফ সার্পোটে রাখা হয়। গত সাত দিন তার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করা হয়েছে, কিন্তু ছেলেটা ফিরলো না।

তিনি আরও বলেন, একজন তরুণ চিকিৎসক এভাবে চলে গেলেন, এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত বেদনার। আমি আবারও বলছি, হ্যান্ড স্যানিটাইজার থেকে সবাইকে সর্তক থাকত হবে। কারণ এটি অত্যন্ত এবং সাংঘাতিক দাহ্যপদার্থ। আগুনের কাছে যেন কোনোভাবেই হ্যান্ড স্যানিটাইজার না থাকে, সেদিকে নজর রাখতে হবে। তিনি বলেন, বাসায়তো হ্যান্ড স্যানিটাইজার দরকার নাই, সাবান পানি দিয়ে হাত ধুলেই হয়ে যায়।

স্বজনরা জানান, ঘটনার দিন রাতে রাজিব বড় একটি বোতল থেকে স্যানিটাইজার ছোট বোতল ঢালছিলেন। এসময় স্যানিটাইজার নিচে পড়ে রাজিবের সিগারেট থেকে আগুন ধরে যায়। রাজিবের গায়ে আগুন দেখে ছুটে আসে তার স্ত্রী। এসময় তিনিও দগ্ধ হন। ঘটনার সময় তাদের পাঁচ বছরের মেয়ে কুমিল্লায় দাদার বাড়িতে ছিল।





© All rights reserved © 2018 Odhikarbd.Com
ILoveYouZannath