শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৭
শীর্ষ সংবাদ

হাইওয়ে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে চালক নিহত, স্থানীয়দের বিক্ষোভ

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক::সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় হাইওয়ে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে মাহেন্দ্র উল্টে চালক আবদুস সামাদ মোড়ল (৪৫) নিহত হয়েছেন। আজ সোমবার সকাল নয়টার দিকে সাতক্ষীরার তালা উপজেলার হারুন-অর-রশিদ কলেজের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মাহেন্দ্র চালক আবদুস সামাদ মোড়ল পাটকেলঘাটা থানার নগরঘাটার আছির মোড়লের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, সাতক্ষীরা থেকে মাহেন্দ্র চালিয়ে পাটকেলঘাটায় ফিরছিলেন আবদুস সামাদ। পথে বিনেরপোতা বাইপাস সড়কের সামনে হাইওয়ে পুলিশ তাঁকে দাঁড়ানোর জন্য সংকেত দেয়। তিনি সংকেত অমান্য করে চলে যান। হাইওয়ে পুলিশ এ সময় পেছন থেকে তাঁকে ধাওয়া করেন। দ্রুত গতিতে মাহেন্দ্র চালাতে গিয়ে পাটকেলঘাটা হারুন-অর-রশিদ কলেজের পাশে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। মাহেন্দ্রটি উল্টে যায়। মাহেন্দ্রর নিচে চাপা পড়ে চালক ঘটনাস্থলেই মারা যান।

মাহেন্দ্র চালক সামাদের মৃত্যুর খবর শুনে উত্তেজিত জনতা আধা ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। বিক্ষোভকারীরা ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিচার ও ক্ষতিপূরণ দাবি করেন।

নিহতের মেয়ে সোমা খাতুন দাবি করেন, ধাওয়া না করলে মহেন্দ্র উল্টে তাঁর বাবার মৃত্যু হতো না। তিনি ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনার দাবি করেন। পরে পুলিশ তাদের বুঝিয়ে ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে দেন।

পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়াহিদ মোর্শেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, চালক সামাদের লাশ উদ্ধার করে পাটকেলঘাটা থানায় আনা হয়। নিহতের ভাই আবদুল মুজিদ মোড়ল হাইওয়ে পুলিশের কাছে আবেদন করায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। নিহতের স্বজনেরা কোনো মামলা করেননি।

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার চুকনগর হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ আলম বলেন, হাইওয়ে পুলিশের উপপরিদর্শক ফিরোজ হোসেনের নেতৃত্বে বিনেরপোতা বাইপাস সড়কের সামনে চারটি মাহেন্দ্র আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। পথে সামাদ দ্রুত চালিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ তাঁকে ধাওয়া করে। এ সময় চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে মহেন্দ্র উল্টে তিনি নিহত হন।


এখানে শেয়ার বোতাম