শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৭
শীর্ষ সংবাদ

জাবি উপাচার্যকে কালো পতাকা প্রদর্শন ও অবাঞ্ছিত ঘোষণা

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পের দুর্নীতির অভিযোগে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের পদত্যাগ দাবিতে লাগাতার আন্দোলন করে আসছেন জাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের পাদদেশে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে উপাচার্যকে কালো পতাকা প্রদর্শন ও ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সকল ভবনে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে ১ অক্টোবরের মধ্যে উপাচার্যের স্বেচ্ছায় পদত্যাগ দাবিতে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন টানা ষষ্ঠদিনের মতো উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে তাকে ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্রে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে আন্দোলন কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে।

কর্মসূচিতে আন্দোলনকারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানিতে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিচারও দাবি করেন।

কালো পতাকা প্রদর্শন কর্মসূচিতে নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক সাঈদ ফেরদৌস বলেন, ‘উপাচার্যকে আমরা আল্টিমেটাম দিয়েছি। তাকে ১ অক্টোবরের মধ্যে পদত্যাগ করতে হবে। জাহাঙ্গীরনগর কোনো অন্যায়কে ছাড় দেয় না। আর আমরা দেখছি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক কর্তৃক শিক্ষার্থীকে নিপীড়ন করা হচ্ছে। এটি গুরুতর অপরাধ। নিপীড়নের বিরুদ্ধে বললে শিক্ষার্থীদের আরও নিপীড়িত হতে হয়।’

কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক সোহেল রানা, দর্শন বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক রায়হান রাইন, অধ্যাপক আনোয়ার উল্লাহ ভূঁইয়া, অধ্যাপক কামরুল আহসান, অধ্যাপক ফরিদ আহমেদ, নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মির্জা তাসলিমা সুলতানা, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক নাজমুল হাসান তালুকদার, অধ্যাপক তারেক রেজা, পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক খবির উদ্দিন, অধ্যাপক জামাল উদ্দীন রুনু প্রমুখ।

এছাড়াও ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ও জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃতিক জোটের নেতাকর্মীরাও এই কর্মসূচিতে অংশ নেন।

এসময় মানববন্ধন থেকে আগামী সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে কালো পতাকা প্রদর্শনের সঙ্গে প্রতিবাদী সঙ্গীত পরিবেশনের নতুন কর্মসূচিও ঘোষণা করা।


এখানে শেয়ার বোতাম