মঙ্গলবার, মে ১১
শীর্ষ সংবাদ

’সেলফি লীগ’ ও ‘ফেসবুক লীগ’ নিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে হবে : তথ্যমন্ত্রী

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: ’সেলফি লীগ’ ও ‘ফেসবুক লীগ’ নিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের সতর্ক করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, ‘এখনকার রাজনীতি হয়ে গেছে ফেসবুককেন্দ্রিক। বর্তমানে এমন অনেক ছাত্র ও তরুণকে দেখা যায় ফেসবুকে রাজনীতি করতে। নেতার সঙ্গে একটা ছবি ও সেলফি তুলে কীভাবে ফেসবুকে দিয়ে দেবে, তা নিয়েই ব্যস্ত থাকে বেশি। এসব সেলফি ও ফেসবুক লীগের যন্ত্রণায় আমরা অতিষ্ঠ। এদের কাছ থেকে আমাদের সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে, দল থেকে আগাছা-পরগাছা দূর করতে হবে।’

শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর জেএম সেন হল প্রাঙ্গণে চট্টগ্রাম মহানগর তাঁতী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, তাঁতী লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি শওকত আলী, সাধারণ সম্পাদক খগেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথ, কার্যনির্বাহী সভাপতি সাধনা দাশগুপ্তা প্রমুখ।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সম্মেলন সামনে রেখে আওয়ামী লীগকে পরিস্কার করার কাজ চলছে। পরপর তিনবার রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকার কারণে আমাদের সংগঠনে অনেক আগাছা-পরগাছা ঢুকেছে। অনেকে নানাভাবে পদ-পদবিও পেয়েছে। সংগঠনের ভেতর থেকে সবাইকে আগাছা-পরগাছা দূর করতে হবে। আগামীতে সংগঠনে যাতে কোনো আগাছা-পরগাছা পদ না পায়, সেদিকে সবাইকে সচেষ্ট থাকতে হবে।’

দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল বলেন, ‘কোনো বড় ভাই কিংবা কোনো রাজনৈতিক ব্যক্তির রাজনীতি নয়; দলের নেতাকর্মীদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করতে হবে। মঞ্চে দাঁড়িয়ে আমি জোরে ভাষণ দিলাম। আমাকে খুশি করতে আপনারা আরও জোরে ভাই ভাই বলে স্লোগান তুললেন-এ ধরনের রাজনীতি দিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়া সম্ভব নয়। বঙ্গবন্ধুর কর্মী হতে হলে তার আদর্শ ও দর্শনকে মনে ধারণ করতে হবে।’


এখানে শেয়ার বোতাম