মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৩
শীর্ষ সংবাদ

৭ নেতা-কর্মীর মুক্তি সহ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করার দাবি ছাত্র ফ্রন্টের

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 103
    Shares

অধিকার ডেস্ক:: লেখক মোশতাক হত্যার প্রতিবাদে ২৬ তারিখ মশাল মিছিল থেকে আটককৃত ৭ ছাত্র নেতা আরাফাত সাদ, নজির আমিন জয়, তামজীদ হায়দার চঞ্চল, জয়তী চক্রবর্তী, নাজিফা জান্নাত, তানজিম রাফি ও আকিফ আহমেদের জামিন নামঞ্জুর করে রায় দেয়ার প্রতিবাদ জানিয়েছেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় সভাপতি মাসুদ রানা ও সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার।

এক যুক্ত বিবৃতিতে তারা বলেন, দেশের অভ্যন্তরে এক ফ্যাসিবাদী দুঃশাসন চলছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের নামে হরণ করা হচ্ছে মানুষের কথা বলার অধিকার। সামান্য স্ট্যাটাস দেয়া ও কার্টুন আঁকার জন্য লেখক মোশতাক, সাংবাদিক কাজল, কার্টুনিস্ট কিশোরসহ গ্রেফতার করা হয় অনেককে। কারান্তরীণ অবস্থায় মৃত্যু হয় মোশতাকের। এই ঘটনায় বিক্ষোভে ফেটে পড়ে দেশের ছাত্র সমাজ ও সচেতন মানুষ।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, একদিকে করোনা মহামারীতে জনগনের জীবন অতিষ্ট অন্যদিকে এই সংকট নিয়ে কথা বলার জায়গায় সরকার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের নামে মানুষের টুঁটি চেপে ধরছে। প্রতিবাদের কণ্ঠকে তারা রোধ করতে চাইছে। ভোট ডাকাতির মধ্য দিয়ে আসা সরকার এভাবেই দেশে একটা ফ্যাসিবাদী শাসন ব্যবস্থা কায়েম করতে চাচ্ছে। তার সহযোগি হিসেবে ভুমিকা পালন করছে আইন ও বিচার বিভাগ। ডিজিটাল
নিরাপত্তা আইনের নামে মূলত ক্ষমতাসীন দলের দূর্নীতি, অবৈধ কার্যক্রম ও প্রোপাগান্ডাকে নিরাপত্তা দেয়া হচ্ছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, তাই আমরা বলতে চাই মানুষের যে গণতান্ত্রিক অধিকার, কথা বলার অধিকার তা হরণ করা চলবে না। প্রতিবাদ করার অপরাধে যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন অবিলম্বে বাতিল করতে হবে।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 103
    Shares