মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১৯

২৯ মার্চ একই দিনে ভোট চট্টগ্রাম সিটি-যশোর-বগুড়ায়

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ আগামী ২৯ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনেও একই দিন উপনির্বাচন হবে বলে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত নির্বাচন ভবনে ৬১তম কমিশন সভা শেষে ইসির জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর এ তথ্য জানান।

এর আগে, বিকেল ৩টায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে সভায় বসে কমিশন।

সভা সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম সিটিতে ইভিএমে ভোট হবে। আর বগুড়া-১ ও যশোর-৬ উপনির্বাচনে ব্যালটে ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

ইসি সচিব বলেন, ‘সকালে ভোটাররা ঘুম থেকে ওঠেন না। তাই ৮টার পরিবর্তে ৯টা থেকে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে সচিব বলেন, ‘মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৭ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার), বাছাইয়ের দিন ১ মার্চ (রোববার), মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরের সময় ২ থেকে ৪ মার্চ (সোম থেকে বুধবার), আপিল নিষ্পত্তি ৫ থেকে ৭ মার্চ (বৃহস্পতি থেকে শনিবার), প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৮ মার্চ (রোববার), প্রতীক বরাদ্দ ৯ মার্চ (সোমবার) এবং ভোটগ্রহণ ২৯ মার্চ (রোববার)।’

ইভিএমে ভোট দেয়ার ক্ষেত্রে সহায়তাকারী হিসেবে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের এজেন্টরা গোপন কক্ষে অবস্থান করেছে। এটা প্রতিরোধে এবার কী ধরনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে?

জবাবে মো. আলমগীর বলেন, ‘এ ধরনের কাজ করার সুযোগ নেই। নির্বাচন করা একক কারো দায়িত্ব নয়। এটার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের (ইসি), যারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন সেসব প্রার্থীর, তাদের সমর্থকদের, ভোটারের এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর। সবাই যদি যার যার দায়িত্ব পালন করেন, তাহলে এই ধরনের ঘটনা ঘটার সুযোগ নেই।’

সচিব বলেন, ‘চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে সব দলই অংশ নেবেন বলে আমরা আশাবাদী।’

তিনি আরও বলেন, ‘সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু ভোট করার জন্য যা যা দরকার কমিশন তা করবে। সকল ভোটারকে বলব- নির্ভয়ে, নিশ্চিতে আপনার যে অধিকার রয়েছে তা প্রয়োগ করবেন।’

এ সময় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা, নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, কবিতা খানম ও সচিব মো. আলমগীর সহ ইসির শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


এখানে শেয়ার বোতাম