শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৬
শীর্ষ সংবাদ

২০ লাখ ম্যাচ খেলে ক্রিকেটকে বিদায় বলবেন ৮৫ বছরের সিসিল

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক ::  ক্রিকেট নিয়ে যারা সারা দিন মেতে থাকেন তারাও হয়তো সিসিল রাইটের নাম জানেন না। অথচ অনেক আগেই তিনি বড় রেকর্ড গড়ে বসে আছেন। নাম উঠিয়েছেন ক্রিকেটের রেকর্ড বুকে। ভিভ রিচার্ডস-গ্যারি সোবার্সদের সঙ্গে খেলেছেন তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাদের মতো কিংবদন্তি সিসিল হতে পারেননি। তবে দীর্ঘ ক্যারিয়ারের কারণে তাদের থেকে যোজন-যোজন এগিয়ে গেছেন এই ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার।

আগামী ৭ সেপ্টেম্বর ক্রিকেটকে বিদায় বলবেন ৮৫ বছরের এই ক্রিকেটার। বিস্ময়কর বটে। ১২ গজ লম্বা রান আপ নিয়ে পেস বোলিং করেন তিনি। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ৬০ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ার তার। উইকেট নিয়েছেন সাত হাজার। এছাড়া তিনি প্রায় দুই লাখ ম্যাচ খেলেছেন বলে দাবি করা হচ্ছে। ওল্ডহ্যামে পেনি লিগে আপারমিলের হয়ে খেলেন তিনি। স্প্রিংহেডের বিপক্ষে শেষ ম্যাচ খেলবেন ৮৫ বছরের বিস্ময় এই ক্রিকেটার।

সিসিল রাইটের ৮০ বছর বয়সে ক্রিকেট  খেলার মুহূর্ত। ছবি: টুইটার 

১৯৫৯ সালে জামাইকার হয়ে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হয় সিসিলের। ১৯৫৯ সালে পাড়ি জমান ইংল্যান্ডে। সেখানে সেন্ট্রাল ল্যাঙ্কাশায়ার লিগে পেশাদারি ক্রিকেট শুরু করেন। সত্তরের দশকের শেষ দিকে আর আশির দশকের শুরুতে রিচার্ডস ও জোয়েল গার্নারদের সঙ্গে খেলেছেন সিসিল। তিনি পাঁচ মৌসুমে ৫৩৮ উইকেট নিয়ে রেকর্ড গড়েন। গড়ে প্রতি ২৭ বলে তুলে নেন একটি করে উইকেট।

সিসিল রাইটের ৮০ বছর বয়সে ক্রিকেট খেলার মুহূর্ত। ছবি: টুইটার
ক্রিকেটের বাইবেল খ্যাত উইজডেন সিসিলের খেলে যাওয়ার মানসিক শক্তি নিয়ে বলে, ‘ভালোই তো যাচ্ছিল।’ ভালো গেলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই ক্রিকেটার হয়তো উপলদ্ধি করেছেন, তার সময় শেষ। তবে এতোদিন যে কোন পরিসরে খেলে যাওয়ার জন্য ফিটনেস ধরে রাখা কম কথা নয়। সিসিল তার ফিটনেস রহস্য জানেনও। কিন্তু ফাঁস করলেন না।

তিনি বলেন, ‘আমি জানি আমার ফিটনেস রহস্য কি। তবে তা আমি বলবো না।’ একটা রহস্য অবশ্য ফাঁস করেন তিনি, ‘সত্যি বলতে আমার যা ভালো লাগে সবই খাই আমি। কিন্তু খুব বেশি মদ পান করি না। এভাবেই আমি ফিট। তবে আজকাল অনুশীলন মিস করি। সেজন্য আমার বয়সকে অজুহাত হিসেবে দাঁড় করায়।’ এছাড়া ঘরে বসে বসে টিভি দেখেন না বরং ওই সময়টা হাঁটা-হাঁটি করে কাটান বলেও উল্লেখ করেন সিসিল।


এখানে শেয়ার বোতাম