সোমবার, নভেম্বর ৩০

১০ বছর ধরে সিমেন্টের বস্তার ঘরে থাকছেন নাজমা

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: অর্থনৈতিকভাবে দেশ এগিয়ে গেলেও উন্নয়নের তেমন ছোঁয়া লাগেনি প্রত্যন্ত অঞ্চলে। উন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জন করলেও এখনো দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করছে দেশের অনেক মানুষ। এসব মানুষের একজন নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলার বজরা গ্রামের বাসিন্দা নাজমা বেগম।

১০ বছর ধরে সিমেন্টের বস্তা দিয়ে তৈরি করা ঘরে বসবাস করছেন নাজমা। সরেজমিনে নাজমা বেগমের বাড়ি ঘুরে এসব তথ্য জানায় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ডু সামথিং ফাউন্ডেশন’।

ডু সামথিং ফাউন্ডেশনকে নাজমা জানান, স্বামী আব্দুল ওহাব রিকশা চালাতেন। বর্তমানে অসুস্থতার জন্য তিন বছর ধরে ঘরে পড়ে আছেন। মানুষের বাড়িতে কাজ করে কোনোরকমে সংসার চালান নাজমা। তাদের ১৬ ও ১১ বছর বয়সী দুই সন্তান থাকলেও উপার্জনক্ষম হয়নি। সামর্থ্যের অভাবে তাদের পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গেছে।

নাজমা বেগমের বাড়ি ঘুরে দেখা যায়, তাদের বসবাসের ঘরটির জরাজীর্ণ অবস্থা। সিমেন্টের বস্তা দিয়ে চারপাশটা বেড়া দেয়া হয়েছে। স্বামী, দুই সন্তান ও দেবরের বউ মিলে পাঁচজনের বসবাস এই ঘরে। সামর্থ্যের অভাবে কিছুই করতে পারছেন না তারা। সেজন্য তার ঘরটি করে দেয়ার জন্য আকুতি জানিয়েছেন তিনি।

নাজমা বেগমের ঘরটি তৈরি করতে প্রায় ৪০ হাজার টাকা প্রয়োজন। ইতোমধ্যে ডু সামথিং ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে ১৫ হাজার টাকা জোগাড় হয়েছে। বাকি ২৫ হাজার টাকার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেশের বিত্তবান মানুষের সহযোগিতা প্রত্যাশা করছেন তারা। সহযোগিতার জন্য যোগাযোগ করুন (০১৬৪৮৭৮৬২৮৮, ০১৭৩৬ ২৮৬৫৬২)।


এখানে শেয়ার বোতাম