শনিবার, এপ্রিল ১৭
শীর্ষ সংবাদ

হরতালের সমর্থনে বিএনপি কার্যালয়ে নেতাকর্মীরা, স্লোগান তুললেন ইশরাক

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে হরতাল পালন করছে বিএনপি। হরতালের সমর্থনে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সকাল থেকে কিছু নেতাকর্মী জড় হন। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি বাড়তে থাকে। কর্মীদের পাশাপাশি দলের শীর্ষ নেতারা আসেন দলীয় কার্যালয়ে।

এরমধ্যে সকাল ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থানরত রুহুল কবির রিজভীর সঙ্গে কথা বলেন পুলিশের মতিঝিল জোনের সহকারী কমিশনার জাহিদুল ইসলাম। পুলিশের এই কর্মকর্তা রুহুল কবির রিজভীকে আধঘণ্টার মধ্যে রাস্তা ছেড়ে দেওয়ার জন্য আল্টিমেটাম দেন। পুলিশের আল্টিমেটামের পর ঘটনাস্থলে থাকা বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে কিছুটা উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে তিন মিনিটের মধ্যে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে চলে যান দলটির নেতা-কর্মীরা। এর কিছুক্ষণ পর নেতাকর্মীরা আবার জড় হতে থাকেন।

এরআগে সকাল সোয়া ১১টার দিকে আসেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন। তিনি এসেই স্লোগান শুরু করে বলেন, ‘প্রহসনের নির্বাচন মানি না, মানবো না’। এরপর মাটিতেই বসে পড়ে নেতাকর্মীদের সঙ্গে স্লোগান দেন তিনি।

রোববার দুপুর ১টায় নয়াপল্টনে দিয়ে দেখা গেছে, ইশরাক হোসেন নেতাকর্মীদের নিয়ে সামনের সারি থেকে স্লোগান দিচ্ছেন।

দলীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান করছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, যুবদলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরীসহ অঙ্গসংগঠনের অনেক নেতাকর্মীরা।


এখানে শেয়ার বোতাম