বুধবার, জানুয়ারি ২৭

হজে অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে চার দেশ

এখানে শেয়ার বোতাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মহামারি করোনার কারণে বিশ্বের সবচেয়ে বড় জমায়েত হজে অংশ নিচ্ছে না বিশ্বের চারটি দেশ। দেশগুলোর মধ্যে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া ও ব্রুনেই ছাড়াও সিঙ্গাপুরও রয়েছে। তবে সৌদি আরব এ বছর হজ বাতিলের চিন্তাভাবনা করছে বলেও বেশি কিছু সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে।

করোনার বিস্তারের আশঙ্কা ছাড়াও ভাইরাসটির ভ্যাকসিন না পাওয়ার কারণে দেশের নাগরিকদের এ বছর হজ পালনে নিষেধাজ্ঞার কথা নিশ্চিত করেন মালয়েশিয়ার ধর্মমন্ত্রী জুলকিফলি মোহাম্মদ আল-বাকরি। তিনি টেলিভিশন ভাষণে বলেন, ‘আশা করি হজযাত্রীরা ধৈর্যশীল হবেন এবং এ সিদ্ধান্ত মেনে নেবেন।’

এর আগে গত সপ্তাহে বিশ্বের সবচেয়ে বড় জনগোষ্ঠীর মুসলিম প্রধান দেশ ইন্দোনেশিয়া চলতি বছর দেশের নাগরিকদের হজযাত্রা বাতিল করে। গত ২ জুন দেশটির ধর্ম মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করে। এতে করে ২ লাখ ২১ হাজার মানুষের হজযাত্রা বাতিল হয়। প্রতি বছর ইন্দোনেশিয়া থেকে সবেচেয়ে বেশি মানুষ হজে যায়।

গত বুধবার চলতি বছরে হজে যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এশিয়ার আরেক মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ ব্রুনেই। ধর্মমন্ত্রী বাহারউদ্দিন সংবাদ সম্মেলনে এ সিদ্ধান্তের কথা নিশ্চিত করেন। এদিকে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার নগররাষ্ট্র সিঙ্গাপুরও তার নাগরিকদের এবারের হজে অংশ নেওয়ার অনুমতি দেবে না বলে জানিয়েছে।

ওদিকে সৌদি আরব নিজেরাও হজ বাতিল করার চিন্তা ভাবনা করছে বলে জানা গেছে। হজের মতো বৈশ্বিক এ বিশাল জমায়েত করোনার ভয়ে বাতিল করার জন্য চাপে রয়েছেন সৌদি কর্মকর্তারা। দেশটির হজ মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেছেন, এক সপ্তাহের মধ্যে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসতে পারে।

আগস্টের ২৯ তারিখে হজ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। কিন্তু সৌদি আরব করোনা সংক্রমণের ভয়ে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল নিষিদ্ধ করেছে। ফলে বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে হজে আগ্রহীরা চাইলেও আসতে পারবেন না। এছাড়া অনেক দেশ এ বছর হজে না পাঠানোর কথা এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছে।


এখানে শেয়ার বোতাম