শনিবার, নভেম্বর ২৮

সুশান্ত হত্যা তদন্ত নিয়ে ভারতের রাজনীতিতে উত্তাপ

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 4
    Shares

অধিকার ডেস্ক:: অনেক জল ঘোলার পর চিকিৎসক কমিটির প্রধান সুধীর গুপ্ত স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, সুশান্তকে হত্যার কোনো আলামত মেলেনি, তিনি আত্মহত্যাই করেছেন। আর তাতেই কেঁপে উঠছে বলিউড ছাড়িয়ে রাজনীতির মাঠও।

কেউ বলছেন- তদন্তের নামে উপহাস, কেউবা মাদককাণ্ড নিয়ে বিষয়টা ঘোলাটে করার অভিযোগ করছেন। আলোচনায় যোগ দিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতার দাবি-নির্বাচন এলেই নাটক শুরু করে কেন্দ্র।

সুশান্ত আত্মহত্যা করেছেন, হত্যার কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। চিকিৎসক কমিটির এমন ভিসেরা রিপোর্টের পরই সরব হয় সুশান্তের পরিবার ও বলিউড। অভিযোগ উঠেছে, চিকিৎসকদের এই রিপোর্ট পুলিশ প্রতিবেদনের কার্বন কপি।

সুশান্তের বোন শ্রেয়া সিং এক স্ট্যাটাসে হ্যাশ ট্যাগ দিয়ে লিখেন- অল আইস অন সিবিআই। তাকে সমর্থন করে টুইট করেন সুশান্তের সহ-অভিনেত্রী অঙ্কিতা লোখণ্ডে। কঙ্গনা রানাউত টুইটে এমসকে হ্যাশ ট্যাগ করে লিখেন, সুশান্তকে ব্যঙ্গ বিদ্রুপের শিকার হতে হয়েছে, মিথ্যা ধর্ষণের দায় নিতে হয়েছে।

তারকা অভিনেতা অক্ষয় কুমার একটি ভিডিও প্রকাশ করে সুশান্ত ও বলিউডের মাদককাণ্ড নিয়ে সরব হন। সব ছাপিয়ে সুশান্তকে নিয়ে সবচেয়ে বেশি বাহাসে মেতেছেন ভারতের রাজনীতিকরা।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেন, ‘নিবার্চন আসলেই শুরু হয় বড় নাটক, টনক নড়ে বাবুদের…। সুষ্ঠু তদন্তের দাবি তার।’

অন্যদিকে শিবসেনা, কংগ্রেস এবং জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টিসহ অনেকেই বিজেপিকে ধুয়ে দিয়েছে। তবে বিজেপি বলছে, সুষ্ঠু তদন্ত চলছে, সরকারও ন্যায় বিচার চায়।

সুশান্তের হত্যার তদন্ত রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে, এমন অভিযোগ শিবসেনার মুখপাত্র প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদীর। মহারাষ্ট্রের সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী নবাব মালিক বলেন, সুশান্ত হত্যা নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে-এটা এখন প্রমাণিত সত্য।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 4
    Shares