শুক্রবার, নভেম্বর ২৭

সুনামগঞ্জে অনার্স পড়ুয়া দুই ছাত্রীকে মারধর করলেন অধ্যক্ষ

এখানে শেয়ার বোতাম

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মঈনুল হক অনার্স কলেজের দুই ছাত্রীকে শনিবার দুপুরে অধ্যক্ষ মারধর করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই দুই ছাত্রীকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে কলেজের শিক্ষার্থীরা অধ্যক্ষের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন।

সদর হাসপাতালের দুই শিক্ষার্থী জানায়, এইচএসসির নির্বাচনী পরীক্ষায় তারা অকৃতকার্য হয়। শনিবার দুপুরে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়ার কথা বলতে কয়েক শিক্ষার্থীর সঙ্গে তারাও কলেজে যায়। এ সময় অধ্যক্ষ মতিউর রহমান কলেজ প্রাঙ্গণে বাগান পরিচর্যার কাজ করছিলেন। অকৃতকার্য শিক্ষার্থীরা তাদের চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়ার দাবি জানালে অধ্যক্ষ উত্তেজিত হয়ে হাতে থাকা কোদালের হাতল দিয়ে তাদের আঘাত করেন। আঘাতে তাদের একজনের পা এবং অন্যজনের পিঠ ফুলে যায়।

অধ্যক্ষ মতিউর রহমান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ওই শিক্ষার্থীরা অকৃতকার্য হওয়ার পর ইউপি চেয়ারম্যানের অনুরোধে ফের ইংরেজি দুই বিষয়ের পরীক্ষা নেওয়া হয়; কিন্তু তারা দ্বিতীয়বারের পরীক্ষাতেও উত্তীর্ণ হতে পারেনি। অথচ তারা শনিবার এসে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দিতে চাপ প্রয়োগ করে। একপর্যায়ে তাকে এক শিক্ষার্থী ধাক্কা দেয়। বিষয়টি দেখে কলেজের নৈশপ্রহরীসহ আরও কয়েকজন এগিয়ে এলে তাদের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের ধাক্কাধাক্কি হয়। এতে কোনো শিক্ষার্থী আঘাত পেতে পারে। সুনামগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সহিদুর রহমান বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এখানে শেয়ার বোতাম