বুধবার, জানুয়ারি ২৭

সিরাজগঞ্জে মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে বাবা গ্রেপ্তার

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার হরিনাথপুর চর গ্রামে ১৫ বছর বয়সী কিশোরী মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে বাবা মনিরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১২) এর সদস্যরা।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে নিশ্চিত করেছেন সিরাজগঞ্জ র‌্যাব-১২ এর মিডিয়া অফিসার এএসপি মোঃ এরশাদুর রহমান।

তিনি জানান, বেলকুচি থানায় উক্ত কিশোরী কর্তৃক একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগে থেকে জানা যায় যে, ভূক্তভোগীর মেয়ের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়ায় সে সৎ মা ও বাবার আশ্রয়ে বসবাস করছিল। প্রায় এক বছর যাবত তার পিতা বিভিন্ন ভয়ভীতি ও প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে আসছে।

সে পারিবারিক ও সামাজিক সম্মানের কথা বিবেচনা করে এতদিন সহ্য করে আসছিল। কিন্তু তার পাষণ্ড পিতার নির্মম অত্যাচার অসহনীয় পর্যায়ে গেলে সে কোন উপায় খুঁজে না পেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়াম্যানের মাধ্যমে বেলকুচি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার খবর শুনে বিবাদী মোঃ মনিরুল ইসলাম পালিয়ে যায়।

র‌্যাব-১২, সিরাজগঞ্জ ঘটনা সম্পর্কে অবহিত হয়ে আসামীকে গ্রেপ্তারের জন্য গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করে। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার রাতে ঢাকার যাত্রাবাড়ী পশ্চিম জনতা বাজার এলাকা থেকে মনিরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অপরদিকে গত ৮ই মে বিকালে তাড়াশের মান্নান নগর বাজারের পাশে নির্জন স্থানে একটি অটোভ্যানের মধ্যে নিয়ে হামকুড়িয়া গ্রামের ৫ বছরের শিশু কন্যাকে প্রলোভন দেখিয়ে একই গ্রামের মোঃ আমজাদ হোসেন ধর্ষণের চেষ্টা করে।

এতে শিশুটির প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। এ ঘটনায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে তাড়াশ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

পরবর্তীতে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রাত ১১টার দিকে তাড়াশ থানাধীন মান্নান নগর বাজার এলাকা থেকে শিশু কন্যা ধর্ষণ চেষ্টা মামলার আসামী মোঃ আমজাদ হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়।


এখানে শেয়ার বোতাম