বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৫
শীর্ষ সংবাদ

শেষ ম্যাচে একাদশে পরিবর্তনের সুস্পষ্ট আভাস তামিমের

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 9
    Shares

অধিকার ডেস্ক:: তার ফর্ম নিয়ে কথা বলার কিছু নেই। অতিবড় সমালোচকেরও মুখ বন্ধ। কারণ, ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে এই সিরিজ শুরুর আগে শেষ দুই ম্যাচে পরপর শতক উপহার দিয়েছিলেন তামিম ইকবাল। সেটা ছিল গত বছর মার্চে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিলেটে তিন ম্যাচের সিরিজে তামিম ইকবালের ইনিংস তিনটি ছিল যথাক্রমে ২৪, ১৫৮ ও ১২৮।

এবং দুটি সেঞ্চুরিরই স্ট্রাইকরেট ছিল ১১৬ প্লাস। হ্যাঁ, ওই সিরিজের প্রথম ম্যাচে একটু বেশি স্লো ব্যাটিং করেছিলেন তামিম। ২৪ করতে খেলতে হয়েছিল ৫৫ বল (স্ট্রাইকরেট ৫৫.৮১)।

কিন্তু ৩ মার্চ পরের ম্যাচেই ১১৬.১৭ স্ট্রাইকরেটে ১৩৬ বলে ২০ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় খেলে ফেলেন এক ইনিংস। আর অধিনায়ক মাশরাফির বিদায়ী ম্যাচে তামিমের ব্যাট থেকে বেরিয়ে আসে ১০৯ বলে (১১৭.৪৩) ১২৮ রানের হার না মানা ইনিংস।

তারপরও কেন যেন এ সিরিজের আগে হঠাৎই তামিমের স্ট্রাইকরেট নিয়ে কিছু কথা উেঠেছে। ভারপ্রাপ্ত অধিনায়কের তকমা ছেড়ে অনভিজ্ঞ ও দূর্বল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এই ওয়ানডে সিরিজে পুরোদস্তুর ওয়ানডে ক্যাপ্টেন্সি শুরু করে দ্বিতীয় ম্যাচেও তামিম সেই সমালোচনার মোক্ষম জবাব দিতে পারেননি।

বরং পরপর দুই ম্যাচে চল্লিশের ওপরে রান করলেও স্ট্রাইকরেট ৬০-এর ঘর পার করতে পারেননি। প্রথম দিন ৬৯ বলে (৬৩.৭৬ স্ট্রাইকরেট) ৪৪ করার পর আজ হাফ সেঞ্চুরি করতে খেলেছেন ৭৫ বল। তারপরের ডেলিভারিতেই অফস্টাম্পের বাইরে ফ্ল্যাশ করতে গিয়ে হয়েছেন কট বিহাইন্ড ৬৫.৭৮ স্ট্রাইকরেটে ৭৬ বলে ৫০)।

তবে অধিনায়ক তামিমের তা নিয়ে তেমন কোন ভ্রুক্ষেপ নেই। বরং নিজের ব্যাটিংয়ের মূল্যায়ন করতে গিয়ে তামিম সন্তুষ্টিই প্রকাশ করেছেন। তার ব্যাখ্যা, ‘উইকেটে কিছু সময় কাটাতে পেরে ভালো লাগছে।’

নিজ দলের পারফরমেন্সের মূল্যায়নের পাশাপাশি নিজ দলের পারফরমেন্সেও বেশ খুশি তামিম। জানালেন, ‘ড্রেসিং রুমে সবাই ক্ষুধার্ত, ভালো করার জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।’

দলের ভিতরে একটা সুস্থ অথচ জমজমাট প্রতিযোগিতা চলছে। যেখানে সাইফউদ্দীন আর তাসকিনের মত খেলোয়াড়ের একাদশে জায়গা পেতে কষ্ট করতে হচ্ছে- এ কথা জানিয়ে টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘তাসকিন, সাইফউদ্দিনের মতো খেলোয়াড়রা সুযোগ পাচ্ছে না। স্বাস্থ্যকর প্রতিযোগিতা চলছে দলের মধ্যে।’

তারপরও চট্টগ্রামে শেষ ম্যাচে একাদশে পরিবর্তন নিশ্চিত, জানালেন তামিম। কিন্তু তাতেও কোনো সমস্যা হবে না। দলের সবারই খেলার সুযোগ পেতে হবে। যারা দলে সুযোগ পাচ্ছে না, তাদেরও ভালো করার সামর্থ্য রয়েছে। আমি নিশ্চিত তৃতীয় ওয়ানডেতে কিছু পরিবর্তন আসবে দলে। আশা করব, যারাই দলে আসবে তারা যেন ভালো করে।’


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 9
    Shares