রবিবার, এপ্রিল ১১
শীর্ষ সংবাদ

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে দ্বিতীয় দিনের মত অচল বশেমুরবিপ্রবি

এখানে শেয়ার বোতাম

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি:: ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে টানা দ্বিতীয় দিনের মত অচলাবস্থা বিরাজ করছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে। সকাল ৯ টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রশাসনিক ও একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হওয়ার কথা থাকলেও আন্দোলনকারীরা একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবন তালাবদ্ধ করে দেয়ায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কোনো ধরনের কার্যক্রম শুরু হয়নি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বিশ্ববিদ্যালয় মন্জুরি কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক ইতিহাস বিভাগের অনুমোদনের দাবিতে প্রায় ২ শতাধিক শিক্ষার্থী প্রশাসনিক ভবনের নিচে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে।

এদিকে গতকালের পর আজকেও অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীরা ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীদের সাথে আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেছে। সিভিল ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সৈকত জানান, “ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীদের দাবিটি সম্পূর্ণ যৌক্তিক। আমি মনে করি একজন শিক্ষার্থী হিসেবে এই যৌক্তিক দাবিতে তাদের পাশে থাকা আমার কর্তব্য।”

ইতিহাস বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আফতাবউজ্জামান বলেন, “আমাদের যৌক্তিক দাবির সাথে একাত্মতা ঘোষণা করায় অন্যান্য বিভাগের ভাইবোনদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাবো।”

বিশ্ববিদ্যালয়ের চলতি উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহজাহান জানান, “আমরা ইতিহাস বিভাগের দাবির বিষয়ে আন্তরিক। কিন্তু একাডেমিক কাউন্সিলের সভা ছাড়া পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ সম্ভব নয়। আর একাডেমিক কাউন্সিল আহ্বান আমার ক্ষমতার বাইরে।”

উল্লেখ্য, ইউজিসির অনুমোদন ব্যতিতই বশেমুরবিপ্রবির সাবেক উপাচার্য খোন্দকার নাসিরউদ্দিন ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষ ইতিহাস বিভাগের শিক্ষাকার্যক্রম শুরু করেন। প্রায় তিন বছর পর গত ৬ ফেব্রুয়ারী বিভাগটিতে নতুন কোনো শিক্ষার্থী ভর্তি না করার নির্দেশ দেয় ইউজিসি। ইউজিসির সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ৬ ফেব্রুয়ারি রাত থেকেই প্রশাসনিক ভবনের সামনে আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা। বিভাগটিতে বর্তমানে ৪২৪ জন শিক্ষার্থী অধ্যায়নরত রয়েছে।


এখানে শেয়ার বোতাম