শনিবার, ডিসেম্বর ৫

শাহবাগে ৬ষ্ঠ দিনের মতো ধর্ষণ ও নারী নিপীড়নবিরোধী অবস্থান কর্মসূচি

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: সম্প্রতি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও সিলেটের এমসি কলেজসহ বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে ধর্ষকদের শাস্তিসহ নানা দাবিতে ৬ষ্ঠ দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে প্রগতিশীল ছাত্র জোট ভূক্ত বাম সংগঠনগুলো।

শনিবার রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে বিকেল ৪ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি পালন করে তারা। এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগসহ ৯ দফা দাবি জানানোর পাশাপাশি ১৬ অক্টোবর বেগমগঞ্জ অভিমুখে ধর্ষণ ও নারী নিপীড়নবিরোধী লং মার্চ কর্মসূচীর ঘোষণা দেয়া হয়।

ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অনীক রায় বলেন, আমাদের পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচী অনুযায়ী আমরা আমাদের দাবি দাওয়া নিয়ে আজ ষষ্ঠ দিনের মতো এখানে অবস্থান নিয়েছি আমরা আগামী ১৬ তারিখ পর্যন্ত আমরা আমাদের কর্মসূচী চালিয়ে যাব।

তিনি আরও বলেন, কাল আমাদের আলোকচিত্র প্রদর্শনী আছে এবং ইতিমধ্যে আমরা ১৬ অক্টোবর নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ পর্যন্ত লং মার্চের আয়োজন করেছি। এই কর্মসূচীতে অংশগ্রহণের জন্য রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়েছে আমাদের ফেইসবুক পেজের মধ্যে দিয়ে।

সমাবেশে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স বলেন, আমরা দেখেছি যে সারা দেশের বিভিন্ন জায়গায় নানাভাবে আমাদের এই আন্দোলনকে বাঁধা প্রদান করা হচ্ছে, আজকে সকাল বেলাও পুলিশ নারায়ণগঞ্জে বাঁধা দিয়েছে এবং গতকাল ছাত্রলীগের সভাপতি যেভাবে মন্তব্য করেছে তাতে স্পষ্ট শাসকরা ও শাসকদের মদদ পুষ্ট রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা ধর্ষকদের পাহারাদার। আমাদের এ ধরনের হুমকি ধামকি দিয়ে আমাদের আন্দোলন থেকে সরানো যাবে না।

সমাবেশে বামদল ও সংগঠনগুলোর মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে উদীচী শিল্প গোষ্ঠী, বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন, হেলথ সার্ভিস ফোরাম, ডক্টরস ফর হেলথ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

 


এখানে শেয়ার বোতাম