বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৮

শাবি শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত : প্রতিবাদে ক্যাম্পাস উত্তাল

এখানে শেয়ার বোতাম

শাবি প্রতিনিধি:: শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মোফাজ্জল হোসেন টিপুকে (২২) ছিনতাইকারী কর্তৃক ছুরিকাঘাতের প্রতিবাদে ও ছিনতাইকারীর গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার ভবনের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ করে আবার একই স্থানে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

এ সময় শিক্ষার্থীদের ‘প্রতিরোধ প্রতিবাদ, ছিনতাইকারী নিপাত যাক’, ‘ছিনতাইকারীর কালো হাত, ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও’, ‘সন্ত্রাস নয়, শান্তি চাই, শঙ্কামুক্ত জীবন চাই’, ‘ভাইয়ের গায়ে রক্ত কেন? জবাব চাই, দিতে হবে’, ‘ভাইয়ের গায়ে রক্ত কেন? বিচার চাই, করতে হবে’ এবং ‘ছিনতাইকারীমুক্ত সিলেট চাই’ সহ বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দিতে দেখা যায়।

সমাবেশে বক্তব্য দেন, আইকিউএসি’র পরিচালক অধ্যাপক ড. আশরাফুল আলম, স্বপ্নোত্থানের সাধারণ সম্পাদক এস এম নাইমুল হাসান প্রমুখ।

সমাবেশে অধ্যাপক ড. আশরাফুল আলম বলেন, ‘সিলেটের বিভিন্ন জায়গায় প্রায়ই শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ছিনতাইয়ের শিকার হয়। আমিও ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ক্বিন ব্রিজের পাশে ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছিলাম। আমাকে তখন ছুরিকাঘাত করা হয় এবং মোবাইল ও টাকা নিয়ে নেয়। একই স্থানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহিদ আল সালাম ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে নিহত হয়। গতকাল (সোমবার) আরেক শিক্ষার্থী একই রোডে ছুরিকাঘাতের শিকার হয়েছে। এছাড়া প্রতিনিয়তই বিভিন্ন স্থানে ছিনতাই হচ্ছে। পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের উচিৎ এ সকল ছিনতাইকারী এবং চক্রগুলোর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া। ছিনতাইকারীর এই সকল এলাকাগুলোকে পুলিশের বিশেষ নজরদারীতে রাখা দরকার। পাশাপাশি সিভিল ড্রেসেও টহল দিয়ে তাদেরকে ধরার চেষ্টা করতে পারে পুলিশ।’

এস এম নাইমুল হাসান বলেন, ‘পুলিশ তাদের কর্তব্য পালনে প্রায়ই অবহেলা করার কারণে কিছুদিন পর পর এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে। পুলিশের উচিৎ এ সকল ছিনতাইকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া। দুই বছর আগে মাহিদ আল সালাম একই কারণে মৃত্যুবরণ করে। টিপু একইভাবে আক্রান্ত হলেও ভাগ্যবশত সে বেঁচে ফিরেছে। তাই পুলিশের প্রতি আহ্বান জানাবো মাহিদ ভাইয়ের মৃত্যুর মতো কোনো ঘটনা আবার ঘটার আগেই আপনারা যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করুন।’

জানা যায়, গতকাল সোমবার দিবাগত রাত ৮টার দিকে টিউশনি করে ফেরার পথে সিলেট নগরীর জিতু মিয়ার পয়েন্টের পার্শ্ববর্তী স্থানে ছিনতাইয়ের শিকার হন শাবিপ্রবির শিক্ষার্থী তোফাজ্জল হোসেন টিপু। ছিনতাইকারীকে মোবাইল এবং টাকা দিতে না চাইলে এক পর্যায়ে ছিনতাইকারীরা তার হাত ও পায়ে ছুরিকাঘাত করে। পরবর্তীতে তাকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় এবং তার পায়ে ৬টি সেলাই দেওয়া হয়।

এর আগে ২০১৮ সালের ২৫ মার্চ রাতে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে নিহত হন অর্থনীতি বিভাগের ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মাহিদ আল সালাম।


এখানে শেয়ার বোতাম