বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৮

লন্ডনে করোনাভাইরাসে সিলেটির মৃত্যু

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 157
    Shares

লন্ডন প্রতিনিধি:: লন্ডনের বাঙালি অধ্যুষিত টাওয়ার হ্যামলেটসে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরেক ব্রিটিশ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। সিলেটের গোলাপগঞ্জের বাগিরঘাট গ্রামে তার মূল বাড়ি।

হাসপাতালে ৮ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর শুক্রবার ভোরে পূর্ব লন্ডনের রয়েল লন্ডন হাসপাতালে মারা যান। ৬৬ বছর বয়সী এই ব্যক্তির নাম আফরোজ মিয়া। ৬ মাস আগে বাংলাদেশ সফর করে আসা আফরোজ মিয়া ৮ দিন আগে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলে তার শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। যদিও দীর্ঘদিন ধরেই ডায়বেটিসসহ নানাবিধ শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন তিনি। ঘাতক এই ব্যাধির সাথে ৮ দিন লড়াই করার পর অবশেষে শুক্রবার মারা যান তিনি।

মৃতের মরদেহ রয়েল লন্ডন হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। মরদেহ স্বজনদের কাছে কিভাবে কখন হস্তান্তর করা হবে এ বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

এদিকে দ্য রয়েল লন্ডন হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে এক ব্রিটিশ-বাংলাদেশির মৃত্যুর খবরে লন্ডনের প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। সবাই স্বাস্থ্যবিষয়ক সচেতনতার পাশাপাশি সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করছেন। ভবিষ্যত খাবার সংকট মোকাবিলায় নিজেদের খাবার মজুত করতে অনেকেই মার্কেটে ভিড় জমাচ্ছেন। পূর্ব লন্ডনসহ সারা ব্রিটেনের সুপার স্টোরগুলোতে ইতোমধ্যে স্যানিটাইজার, মাস্ক, হ্যান্ডওয়াশ, টিস্যু ও প্যারাসিটামলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের সংকট সৃষ্টি হয়েছে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার পর্যন্ত ব্রিটেনে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৭৯৮ জন এবং আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ১১ জন। এরমধ্যে দু’জন ব্রিটিশ-বাংলাদেশি। এর আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী যুক্তরাজ্যের তৃতীয় ব্যক্তি ছিলেন ম্যানচেস্টারে বসবাসরত ৬০ বছর বয়সী আরেক ব্রিটিশ-বাংলাদেশি। যিনি ৫/৬ বছর আগে ইতালি থেকে এসে স্থায়ীভাবে বসবাস করছিলেন ব্রিটেনে। সম্প্রতি ইতালিতে বেড়াতে গিয়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণের শিকার হয়েছিলেন তিনি।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 157
    Shares