মঙ্গলবার, মার্চ ৯
শীর্ষ সংবাদ

যাই ঘটুক, সাকিবের পাশে থাকব : ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: সাকিব আল হাসানের বিরুদ্ধে ‘জুয়াড়িদের প্রস্তাব গোপনের’ যে অভিযোগ বাতাসে ভাসছে, সে বিষয়ে মঙ্গলবারের মধ্যে পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যাবে জানিয়ে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, তবে যাই ঘটুক, সাকিবের পাশে থাকব।

মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) সকালে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।‘কিছু ঘটনা ঘটেছে’ তার ইঙ্গিত প্রতিমন্ত্রীর কথাতেও উঠে আসে।

জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, আমি বিসিবির সাথে যোগাযোগ করেছি। তারা আমাকে আশ্বস্ত করেছেন, তারা আইসিসির কাছে লিখবেন। আশা করি, আজকের মধ্যে জানা যাবে আসলে কি হতে যাচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এটা আইসিসির বিষয়, আমাদের হস্তক্ষেপ করার সুযোগ নেই। তবে কোনো কঠোর সিদ্ধান্ত আসুক বা না আসুক, অবশ্যই আমরা সাকিবের পাশে থাকব। কিভাবে রক্ষা করা যায় চেষ্টা করব। খেলোয়াড়রা আমাদের সম্পদ, তাদের রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব। অবশ্যই তাদের পাশে আছি।

দৈনিক পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশের পর থেকেই মন্ত্রণালয় বিষয়টিতে সার্বক্ষণিক নজর রাখছে জানিয়ে রাসেল বলেন, ভারত সফরের জন্য সাকিবকে অধিনায়ক রেখেই বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা করা হয়েছে কয়েক দিন আগে। তবে দলের অনুশীলনে সাকিবের অনুপস্থিতি দেখে ডালপালা মেলছিল নানা গুঞ্জন।

রবি ও সোমবার ক্রিকেটাররা নিজেদের মধ্যে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেললেও সাকিব একটিও খেলেননি। তাতে নতুন করে মাথাচাড়া দেয় অনেক প্রশ্ন। মঙ্গলবার দেশের একটি দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, দুই বছর আগে জুয়াড়িদের কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েও আইসিসি বা বিসিবিকে জানাননি সাকিব।

এ প্রসঙ্গে এক প্রশ্নে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, বিসিবি থেকে আমাকে যেটা বলেছেন, তারাও কিছু জানতেন না। সাকিব হয়ত হালকভাবে নিয়েছেন, হয়ত ভেবেছেন কিছু হবে না।

ক্রিকেটারদের ধর্মঘটের পেছনে বিসিবি সভাপতি যে ‘ষড়যন্ত্রের’ গন্ধ পাওয়ার কথা বলেছিলেন তার সঙ্গে এর কোনো সংযোগ আছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে এটার (ষড়যন্ত্রের) কোনো সম্পর্ক নেই। অনেক দিন ধরেই নাকি চলছিল বিষয়টি। আসলে আমাদের খেলোয়াড়রাই এ বিষয়ে অবগত করেননি। এটা আমাকে ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছে।

তিনি বলেন, ব্যাপারটা যে এত দূর পর্যন্ত এগিয়েছে, কেউ সেটা বুঝতে পারেনি। বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারত সফর নিয়ে ‘অনিশ্চয়তার শঙ্কাও’ উড়িয়ে দেননি ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী।

সাকিব না থাকলে তো একরকম সিদ্ধান্তহীনতা রয়ে যায়। দ্রুত সমাধান না হলে ইন্ডিয়া ট্যুর সংশয়ে থাকবে, এটাই স্বাভাবিক। তবে ধোঁয়াশা শিগগিরই কেটে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন প্রতিমন্ত্রী।


এখানে শেয়ার বোতাম