রবিবার, নভেম্বর ২৯

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে ৩ কিশোর হত্যা : ৫ কর্মকর্তা রিমান্ডে

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে নির্যাতনে ৩ কিশোর নিহত ও ১৫ জন আহতের ঘটনায় গ্রেফতার ৫ কর্মকর্তাকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। আদালতে সোপর্দের পর শনিবার বিকেলে এই রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক ও সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, সহকারী তত্ত্বাবধায়ক প্রবেশন অফিসার মাসুম বিল্লাহ, কারিগরি প্রশিক্ষক ওমর ফারুক, ফিজিক্যাল ইন্সট্রাক্টর একেএম শাহানুর আলম ও সাইকো সোশ্যাল কাউন্সিলর মুশফিকুর রহমান।

শুক্রবার (১৪ আগস্ট) ১০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে হেফাজতে নেয়া হলে মামলার পর রাতে এই ৫ জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়। শনিবার বিকেলে তাদের প্রত্যেককে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানায় পুলিশ।

শুনানি শেষে যশোরের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহাদী হাসান কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক ও সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, সহকারী তত্ত্বাবধায়ক প্রবেশন অফিসার মাসুম বিল্লাহ, সাইকো সোশ্যাল কাউন্সিলর মুশফিকুর রহমানকে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আর কারিগরি প্রশিক্ষক ওমর ফারুক ও ফিজিক্যাল ইন্সট্রাক্টর একেএম শাহানুর আলমকে তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দেওয়া হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ইনসপেক্টর রকিবুজ্জামান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আদালত সূত্র জানায়, যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে হতাহতের ঘটনায় গ্রেফতার পাঁচ কর্মকর্তাকে ভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও এই ঘটনায় পাঁচ সাক্ষী আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।

শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে গ্রেফতার শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের পাঁচ কর্মকর্তাকে আদালতে হাজির করা হয়। প্রথমে বিচারক ১৭ আগস্ট শুনানির দিন দিয়েছিলেন। কিন্তু পরে রিমান্ড শুনানি হয়েছে। শুনানি শেষে তিনজনকে পাঁচ দিনের এবং দুজনের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে নির্যাতনে তিন কিশোর নিহত হয়। এ সময় আহত হয় অন্তত ১৪ জন। আহতদের যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


এখানে শেয়ার বোতাম