মঙ্গলবার, মে ১১
শীর্ষ সংবাদ

মৌলভীবাজারে কুলাউড়ার বেগমানপুরে সংখ্যালঘু পরিবারে আতঙ্ক

এখানে শেয়ার বোতাম

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়ার বেগমানপুর গ্রামে সংখ্যালঘু পরিবারে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ ঘটনায় পুরো গ্রাম জোড়ে এখন থমথম পরিস্থিতি বিরাজ করছে। খবর পেয়ে কুলাউড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে । বৃহস্পতিবার সকালে গ্রামের উঠোনে কাটা তার দিয়ে বেড়া সৃষ্টির ঘটনাকে কেন্দ্র করে গ্রামের মুসলিম সম্প্রদায়ের আলমাছ মিয়ার সাথে হিন্দু পরিবারের কথা কাটাকাটি নিয়ে এই উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

গ্রামবাসী সূত্রে জানাগেছে উপজেলার বেগমানপুর গ্রামের সকলেই হিন্দু সম্প্রদায় ভুক্ত। ২০০১ সালে বিএনপি সরকারের শাসনামলে গ্রামের নিরীহ লোকদের তাড়িয়ে সঙ্গীসহ আলমাছ মিয়ারা প্রায় ৫ টি বাড়ি দখলে নিয়ে যায়। এই নিয়ে বিতাড়িত হিন্দু পরিবারের মামলাও আদালতে চলমান রয়েছে। বেগমানপুরে বসতি দখল পরবর্তী ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে আলমাছ মিয়া গং নিরীহ হিন্দু সম্প্রদায়কে এক এক করে গ্রাম থেকে তাড়িয়ে দিতে নানা কৌশল করতে থাকেন। এরই ধারাবাহিকতায় গ্রামের উত্তর পার্শ্বে যেদিকে হিন্দু সম্প্রদায়ের বসতি সেই দিকে তার দিয়ে নতুন সীমানা তৈরি করে-যেখানে হিন্দু সম্প্রদায়ের জায়গা রয়েছে।

বিষযটি স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার বিমল দাসকে জানালে তিনি সরেজমিন ঘটনাস্থলে আসেন। ওয়ার্ড সদস্য বিমল দাস বিষয়টি তখন স্থানীয় চেয়ারম্যানকে অবগত করলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ইউপি চেয়ারম্যান কমর উদ্দিন কমরু। তিনি আলমাছ গং এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিদের সার্ভেয়ার মাধ্যমে জায়গার সীমানা চুড়ান্ত করার নির্দেশ প্রদান করলেও আলমাছ গং পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন থেকে অস্ত্রসস্ত্রসহ প্রায় ৩০ জন ডেকে নিয়ে আসেন। এক পর্যায়ে গ্রামের লোকজন থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে সমর্থ হয়। তবে, এ ঘটনায় গ্রামে এখনও থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন রয়েছেন গভীর আতঙ্কের মধ্যে।


এখানে শেয়ার বোতাম