বুধবার, এপ্রিল ১৪
শীর্ষ সংবাদ

মেসি-দেম্বেলের গোলে রিয়ালকে টপকে দুইয়ে বার্সা

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 6
    Shares

অধিকার ডেস্ক:: মেসি-দেম্বেলের গোলে লা-লিগার শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী সেভিয়াকে হারিয়েছে বার্সেলোনা। টানা ১৫ ম্যাচ অপরাজিত বার্সেলোনা ৫৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে দ্বিতীয়তে আছে। এক ম্যাচ কম খেলে তৃতীয় অবস্থানে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের সংগ্রহ ৫২ পয়েন্ট।

এই মাসের শুরুতেই কোপা ডেল রে-তে সেভিয়ার কাছে ২-০ গোলে কুপোকাত হয় বার্সা। এবার লা লিগায় সেই হারের প্রতিশোধ হাড়েহাড়ে নিয়েছে রোনাল্ড কোম্যানের শীর্ষরা।

এদিন ফ্রেঞ্চ তারকা গ্রিজম্যানের মাঠের বাইরে রেখেই ছক সাজান কোম্যান। বার্সার চিরায়ত ৪-৩-৩ এর বদলে খেলান ৩-১-৪-২ ফরমেশন। সুফলও এসেছে, গোল পেয়েছেন ফরোয়ার্ড মেসি-দেম্বেলে দুজনেই। মাঝ মাঠে ডাচ তারকা ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং এর সঙ্গে আলো ছড়িয়েছেন স্প্যানিশ তরূণ পেদ্রি।

মেসিময় ম্যাচে খেলার ২৯ মিনিটেই এগিয়ে যায় বার্সা। মাঝ মাঠে বাঁ প্রান্ত থেকে মেসির লম্বা পাস যায় দেম্বেলের কাছে। দুই ডিভেন্ডারের অফ সাইডের জালে ধরা না দিয়ে ডেম্বেলে দৌড়ে সোজা ঢুকে পড়েন ডি বক্সের বাঁ দিক দিয়ে। এরপর এই ফ্রেঞ্চ তারকার বাঁ পায়ের জোরালো শটে সেভিয়া গোলকিপারের বুনো পায়ের নিচ দিয়ে বল সোজা জড়ায় জালে।

এরপর দ্বিতীয়ার্ধের ৬০ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো বার্সা। গোল পোস্টে দেম্বেলের শট প্রতিপক্ষ প্রতিহত করলেও সেটি অনেকটা ফাঁকায় পেয়ে যান বার্সার আমেরিকান উইংগার সার্জিনো ডেস্ট; কিন্তু ডেস্টের শট ক্রস বারের ওপরে লেগে ফিরে আসে। এর ৮ মিনিট পর মেসির বাড়ানো বলে হেড দিয়ে জালে জড়ান ল্যাংলে; কিন্তু এবার অফসাইডের কারণে সেটি বাতিল হয়ে যায়। এতে মাঠে কিছুটা হতাশ দেখা যায় বার্সা শিবিরকে।

এই হতাশা কাজে লাগিয়ে ৬৩ মিনিটে আক্রমণ ভাগে অলিভার টরেস ও অস্কার রডরিগেজকে নামিয়ে খেলায় কিছুটা গতি বাড়ান সেভিয়া কোচ জুলেন লোপেতেগুই আরগোটে। দ্বিতীয়ার্ধে নামা সেভিয়ার সুসোও বেশ কয়েকবার আক্রমণে যায়। সেই আক্রমণ ঠেঁকাতে আগের ম্যাচের মতোই হিমশিম খান পিকে। তাই কোম্যান রক্ষণভাগে পিকেকে নামিয়ে ৬৭ মিনিটে রেনাল্ড আরোউহোকে নামান। সেভিয়ার গতিরে সঙ্গে পাল্লা দিতে ৭১ মিনিটে পেদ্রি ইনজুরিতে পড়লে তার জায়গায় নামেন আরেক তরূণ বার্সার ফুটবল অ্যাকাডেমি লা মেসিয়ার ইলাক্স মোরিয়াবা। এদিকে রক্ষণভাগে কিছুক্ষণ খেলেই ইনজুরিতে পরে যান পিকের জায়গায় নামা আরোউহো, পরে তার বদলি হিসেবে ৮২ মিনিটে নামানো হয় উমটিটি-কে।

খেলার ৯৫ মিনিটে ইলাক্স মোরিয়াবার সঙ্গে দারুণ ওয়ান-টু করে ড্রিবলিং নৈপুণ্যে বল নিয়ে ডি বক্সের বাঁ দিক দিয়ে ঢুকে পড়েন মেসি। আলতো করে বাড়ানো মেসির শট সেভিয়ার গোলকিপারের গায়ে হালকা লেগে বেরিয়ে যায়। ফলাফলে মেসি গোলকিপারকে কাটিয়ে ডান পায়ের খোচায় সেভিয়ার কফিনে শেষ পেড়েক ঠুঁকতে ব্যবধান বাড়ান। শেষ বাঁশি বাজা পর্যন্ত ০-২তে এগিয়ে ছিল বার্সা।

এই ম্যাচ জিতে বার্সা তার চির প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়ালের থেকে এক পয়েন্টে এগিয়ে থাকলেও পরের ম্যাচে রিয়াল জিতলেই আবার পিছিয়ে যাবে বার্সা। অন্যদিকে তালিকায় শীর্ষে থাকা সিমিওনির অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ ২ ম্যাচ কম খেলে বার্সার চেয়ে ২ পয়েন্ট এগিয়ে আছে। এতেই বোঝা যাচ্ছে লা লিগার এবারের শিরোপার দৌড়ে কতোটা এগিয়ে আছে অ্যাতলেটিকো।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 6
    Shares