সোমবার, মার্চ ১
শীর্ষ সংবাদ

মিয়ানমারে সশস্ত্র বিদ্রোহীদের হামলায় নিহত ১৫

এখানে শেয়ার বোতাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::  মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে একটি মিলিটারি কলেজসহ বিভিন্ন সরকারি স্থাপনায় একযোগে হামলায় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যসহ ১৫ জন নিহত হয়েছেন। স্থানীয় চার সশস্ত্র বিদ্রোহী দলের জোট নর্দার্ন অ্যালায়েন্স এই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

শান রাজ্যের পায়িন উ লউয়িন শহরের ডিফেন্স সার্ভিসেস টেকনোলজিক্যাল একাডেমি (ডিএসটিএ) তে সবচেয়ে বড় হামলাটি সংঘটিত হয়। এছাড়া আরও চারটি জায়গায় বৃহস্পতিবার প্রায় একই সময়ে বিদ্রোহীরা হামলা চালায় বলে মিয়ানমারের সেনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। পায়িন উ লউইনে ডিএসটিএ ছাড়াও একটি হাইওয়ে টোল গেটে হামলা করা হয়। উত্তর শান প্রদেশের নুয়াং খিও অঞ্চলে গকটেইক সেতু ও লুয়াহপান এলাকায় তিনটি হামলার খবরও প্রকাশিত হয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে।

মিয়ানমারের ওই অঞ্চলে বেশ কয়েকটি সংখ্যালঘু নৃগোষ্ঠী তাদের অধিকারের দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে সশস্ত্র সংগ্রাম চালিয়ে আসছে। এরকম চারটি দল- কচিন ইনডিপেনডেন্স আর্মি (কেআইএ), টাঙ ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি (টিএনএলএ), মিয়ানমার ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্স আর্মি (এমএনডিএএ) এবং আরাকান আর্মি (এএ) মিলে গঠন করেছে নর্দার্ন অ্যালায়েন্স। ২০১৬ সালের ডিসেম্বর থেকে মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন স্থানে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়েছে বিদ্রোহীদের ওই জোট।


এখানে শেয়ার বোতাম