রবিবার, নভেম্বর ২৯

মির্জাপুরে বন্যার পানিতে ডুবে ৬ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে গত ১০ দিনে বন্যার পানিতে ডুবে ছয় শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। মির্জাপুর পৌর এলাকার পোষ্টকামুরী, বাওয়ার কুমারজানি, উপজেলার গোড়াই ও উয়ার্শী ইউনিয়নে বন্যার পানিতে ডুবে তাদের মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মির্জাপুর পৌরসভার পোষ্টকামুরী চড়পাড়া ও মির্জাপুর-বালিয়া-ওয়ার্শী সড়কের কিছু অংশসহ উপজেলার বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়ক বন্যার পানিতে ডুবে যায়। এসব স্থানে পরিবারের সদস্য ও বন্ধুদের সঙ্গে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে তাদের মৃত্যু হয়।

৩ আগস্ট মায়ের সঙ্গে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পোষ্টকামুরী চড়াপাড়া এলাকায় সড়কের ডুবে যাওয়া স্থানে গোসল করতে গিয়ে নওশাদ হোসেন (১৩) পানিতে ডুবে মারা যায়। সে পোষ্টকামুরী গ্রামের হরুন অর রশিদ পান্নার ছেলে ও মির্জাপুর সদয় কৃষ্ণ মডেল উচ্চ বিদ্যালেয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

৫ আগস্ট বন্ধুদের সঙ্গে মির্জাপুর-উয়ার্শী-বালিয়া আঞ্চলিক সড়কের রোয়াইল এলাকায় ডুবন্ত সড়কে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে আল আমিন (২২) নামের একজনের মৃত্যু হয়। আল আমিন উপজেলার ভাতগ্রাম ইউনিয়নের কুইচতারা গ্রামের পশ্চিমপাড়া এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে। সে মির্জাপুর সদরের হাসপাতাল রোডের এক ফার্মেসিতে চাকরি করতো।

১০ আগস্ট সকালে গোড়াই ইউনিয়নের নাজিরপাড়া গ্রামে পানিতে ডুবে তাওহীদ মিয়া নামে এক প্রতিবন্ধী ছাত্রের মৃত্যু হয়। তাওহীদ তারার মেলা প্রতিবন্ধী বিশেষ স্কুলের প্রথম শ্রেণির ছাত্র ছিল। সে নাজিরপাড়া গ্রামের মো. লাভলু মিয়ার ছেলে।

১১ আগস্ট পানিতে ডুবে মেহেরুন নেছা (১৩) নামে এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের রহিমপুর গ্রামের বিলে বর্ষার পানিতে গোসল করতে গিয়ে ডুবে তার মৃত্যু হয়। সে ওই গ্রামের মো. ফরহাদ হোসেনের মেয়ে ও গোড়াই উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

একই দিন দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ইতি আক্তার (১০) নামের এক স্কুলছাত্রী বন্যার পানিতে ডুবে মারা গেছে। মির্জাপুর পৌরসভাধীন বাওয়ার কুমারজানী পূর্বপাড়া গ্রামে নানা হেলাল উদ্দিনের বাড়িতে বেড়াতে এসে বন্যার পানিতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে মারা যায়। ইতি উপজেলার আজগানা ইউনিয়নের চিতেশ্বরী গ্রামের বাবলু মিয়ার মেয়ে। সে চিতেশ্বরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

গতকাল বুধবার বন্ধুদের সঙ্গে বন্যার পানিতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে নিলয় মিয়া (১৫) নামে এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার রাজাবাড়ি বাইনাচাল নামক স্থান থেকে তার ভাসমান মরদেহ উদ্ধর করা হয়। নিলয় রাজাবাড়ি গ্রামের মো. আকতার মিয়ার ছেলে। সে রাজাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. মিয়াজ উদ্দিন নিলয়ের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মির্জাপুর ফায়ার স্টেশনের স্টেশন কর্মকর্তা মো. আরিফুর রহমান বলেন, সাঁতার না জেনে শখের বশে বন্যার পানিতে স্রোতের মধ্যে গোসল করতে গিয়ে এসব শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।


এখানে শেয়ার বোতাম