সোমবার, মার্চ ৮
শীর্ষ সংবাদ

মার্কিন হুলিয়ায় থাকা তেলবাহী ইরান জাহাজটি বেচে দিয়েছে

এখানে শেয়ার বোতাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: মার্কিন হুলিয়ায় থাকা তেলবাহী জাহাজটি শেষ পর্যন্ত বিক্রি করে দিয়েছে ইরান। গতকাল সোমবার দ্য ইনডিপেনডেন্ট অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

আদ্রিয়ান দারিয়া ১ নামের জাহাজটিতে ২ দশমিক ১ মিলিয়ন ব্যারেল অপরিশোধিত তেল রয়েছে। তেলসহ জাহাজটি এক অজ্ঞাত ক্রেতার কাছে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে।

ইরান সরকারের এক মুখপাত্র গতকাল দেশটির রাজধানী তেহরানে এক সংবাদ সম্মেলনে তেলসহ জাহাজটি বিক্রি করে দেওয়ার কথা জানান।

ইরান সরকারের ওই মুখপাত্র বলেন, এখন জাহাজটির গন্তব্য কী হবে, তা তার ক্রেতাই ঠিক করবেন।

এখন জাহাজটি ভূমধ্যসাগরে আছে। জাহাজটি পূর্ব দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

ইরানের তেলবাহী জাহাজটির নাম ছিল ‘গ্রেস ১ ’। গত ৪ জুলাই ব্রিটিশ রয়্যাল মেরিন জিব্রালটার প্রণালিতে জাহাজটি জব্দ করে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সিরিয়ায় তেল নিয়ে যাচ্ছে—এমন সন্দেহে জাহাজটিকে জব্দ করা হয়েছিল।

জাহাজটি জব্দ নিয়ে ইরানের সঙ্গে যুক্তরাজ্যের কূটনৈতিক বিরোধ দেখা দেয়। তারাও একটি ব্রিটিশ পতাকাবাহী জাহাজ জব্দ করে। ব্রিটিশ পতাকাবাহী জাহাজটি এখনো ইরানের হাতে জব্দ আছে।

তেল সিরিয়ায় যাবে না—এই মর্মে ইরানের কাছ থেকে নিশ্চয়তা পাওয়ার পর ১৫ আগস্ট জাহাজটি ছেড়ে দেয় জিব্রালটার কর্তৃপক্ষ।

জাহাজটিকে ফের জব্দ করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। তবে যুক্তরাষ্ট্রের এই অনুরোধ নাকচ করে জিব্রালটার কর্তৃপক্ষ।

জিব্রালটার কর্তৃপক্ষ জানায়, জাহাজটি ফের জব্দ করার ব্যাপারে তারা ওয়াশিংটনের অনুরোধ রাখতে পারছে না। কারণ, ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি ইউরোপীয় ইউনিয়নে (ইইউ) প্রযোজ্য নয়।

পরে জাহাজটি জব্দ করতে যুক্তরাষ্ট্র পরোয়ানা জারি করে। একই সঙ্গে জাহাজটিকে গ্রহণ না করার ব্যাপারে বিভিন্ন দেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

জিব্রালটার থেকে ছাড়া পেয়ে জাহাজটি নাম বদলে ‘আদ্রিয়ান দারিয়া ১’ হয়।

জাহাজটির প্রথমে গ্রিস যাওয়ার কথা ছিল। পরে গন্তব্য লেখা হয় তুরস্ক। একপর্যায়ে এই গন্তব্যের কথাও সরিয়ে নেয় জাহাজটি।


এখানে শেয়ার বোতাম