বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৬

মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে ধাওয়া দিল রুশ যুদ্ধজাহাজ

এখানে শেয়ার বোতাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: মধ্যপ্রাচ্যে চলমান যুদ্ধাবস্থার মধ্যে পারস্য উপসাগর সংলগ্ন উত্তর আরব সাগরে যুক্তরাষ্ট্রের একটি যুদ্ধজাহাজকে (ডেস্ট্রয়ার) ধাওয়া করেছে রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ। মার্কিন নৌবাহিনী বলছে, তারা বারবার সতর্কবার্তা পাঠানো সত্ত্বেও গত বৃহস্পতিবার রুশ ওই যুদ্ধজাহাজটি ডেস্ট্রয়াররের পিছু নেয়।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন ভিডিও ফুটেজসহ ওই ঘটনার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। তাতে দেশটির দুই কর্মকর্তার বরাতে বলা হচ্ছে, রাশিয়ান যুদ্ধজাহাজটি আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ইউএসএস ফারাগাটের দিকে এগিয়ে আসে।

তাদের নৌবাহিনীর দাবি, ঘটনার সময় জাহাজ দুটি পরস্পরের মধ্যে ১৮০ মিটার দূরত্বে চলে আসলে গতি পরিবর্তন করে রাশিয়ান যুদ্ধজাহাজ। এ ঘটনা রুশ-মার্কিন সামরিক বাহিনীর মধ্যকার উত্তেজনার সর্বশেষ উদাহরণ। যুক্তরাষ্ট্র এ ঘটনাকে ‘অনিরাপদ’ ও ‘উস্কানিমূলক’ বলে অভিহিত করেছে।

গত বছরের জুনে পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগর অঞ্চলে একটি রুশ যুদ্ধজাহাজ ও একটি মার্কিন যুদ্ধজাহাজ মুখোমুখি অবস্থানে চলে এসেছিল। এতে দুই দেশের যুদ্ধজাহাজের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হলেও অবশ্য দুটি জাহাজই শেষ পর্যন্ত তা এড়াতে সক্ষম হয়।

গত ৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার পারস্য উপকূলের দেশ বাহরাইনের ঘাঁটিতে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের পঞ্চম নৌ-বহরের ড্রেস্ট্রয়ার ইউএসএস ফারাগাট উত্তর আরব সাগরে নিয়মিত টহল দেয়ার সময় রাশিয়ান ওই যুদ্ধজাহাজটি আক্রমণাত্মকভাবে তাদের দিকে এগিয়ে আসে বলে দাবি করছে যুক্তরাষ্ট্র।

সিএনএন বলছে, মার্কিন ডেস্ট্রয়ার ফারাগাট আন্তর্জাতিক সমুদ্র আইন অনুযায়ী পাঁচটি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে রুশ যুদ্ধ জাহাজকে নিরাপদে যেতে অনুরোধ করে। সেই অনুরোধ উপেক্ষা করায় সংঘর্ষ অনিবার্য হয়ে ওঠে। তবে শেষ মুহুর্তে রেডিও যোগাযোগ স্থাপন করা হলে গতি পরিবর্তন করে রুশ যুদ্ধজাহাজ।

মার্কিন নৌবাহিনী আনুষ্ঠানিকভাবে জানায়, তাদের ওই ডেস্ট্রয়ারটি পঞ্চম নৌবহরের একটি বিমানবাহী রণতরিকে নিরাপত্তা দিয়ে থাকে। রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজটি তাদের বিমানবাহী রণতরির খুব কাছাকাছি চলে আসায় তারা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে সতর্ক করেছিল।

মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানায়, রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজটি অপেশাদারি আচরণ করেছে। যার মাধ্যমে গত ৯ জানুয়ারি আন্তজার্তিক সমুদ্র আইন লঙ্ঘন করেছে তারা। রুশ যুদ্ধজাহাজ বাম পাশ দিয়ে যদি অতিক্রম না করতো তাহলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষও বাঁধতে পারত।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের এমন দাবি প্রত্যাখান করে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বিবৃতি দিয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় জানানো হয়েছে, মার্কিন ফারাগাটটি বিপজ্জনক কৌশল অবলম্বন করেছিল। যা পেশাদারি আচরণ নয়। যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ ‘বাস্তবের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়’ বলেও দাবি করেছে তারা।


এখানে শেয়ার বোতাম