বুধবার, জানুয়ারি ২০

ভারতে কৃষক বিক্ষোভ, রণক্ষেত্র হরিয়ানা

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 13
    Shares

অধিকার ডেস্ক:: ভারতের নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো দিল্লিমুখি মিছিল শুরু করেছেন কৃষকরা। হরিয়ানা থেকে যাত্রা শুরু করলে সীমান্তে তাদের আটকে দেয় পুলিশ। এসময় তাদের ছত্রভঙ্গ করতে জলকামান ও কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ। ছয় রাজ্য থেকে যাত্রা করা এ মিছিল সন্ধ্যায় দিল্লিতে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) ভোর থেকেই আবারো কৃষক মার্চ নিয়ে উত্তপ্ত হরিয়ানা রাজ্য। বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) রাতে সোনিপাটে বিরতি নেন তারা। দ্বিতীয় দিনেও পুলিশের বাধার মুখে পড়েন কৃষকরা। হরিয়ানা দিল্লি সীমান্ত পার হতে নিলে কৃষকের মিছিলে কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিবেশ।

কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে বৃহস্পতিবার পাঞ্জাব থেকে মিছিল করে ‘দিল্লি চলো’র ডাক দিয়েছিলেন ছয় রাজ্যের কৃষকেরা। বৃহস্পতিবার দিনভর ব্যারিকেড, কাঁদানে গ্যাস, জলকামানসহ বিভিন্নভাবে বিক্ষোভরত কৃষকদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করেছে হরিয়ানা পুলিশ। প্রচণ্ড শীতের মধ্যেই হরিয়ানার সোনিপথে রাত ১১টার দিকে প্রতিবাদ মুখর কৃষকদের উপর জলকামান চালায় হরিয়ানা পুলিশ। তবে কোন বাধাতেই দমানো যাচ্ছে না আন্দোলনরত কৃষকদের।

সংযুক্ত কৃষক মোর্চা এবং অল ইন্ডিয়া কৃষক কোঅর্ডিনেশন কমিটি জানিয়েছে, দিল্লি ঢোকার জন্য ইতিমধ্যেই ৫০ হাজারের বেশি কৃষক পৌঁছে গেছে দিল্লি-হরিয়ানা সীমানার বিভিন্ন এলাকায়।

এই পরিস্থিতিতে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দিল্লির সীমান্ত। মোতায়েন করা হয়েছে প্রচুর পুলিশ। দিল্লিতে মেট্রো এবং আশপাশের শহরে ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিরোধীদের চরম আপত্তি সত্তেও সংসদের শেষ অধিবেশনে বিতর্কিত কৃষি বিল পাশ করেছিলো বিজেপি শাসিত কেন্দ্রীয় সরকার। তারপর থেকেই বিলটি বাতিলের দাবিতে কৃষিভিত্তিক দুই রাজ্য পাঞ্জাব ও হরিয়ানায় শুরু হয় কৃষকদের আন্দোলন।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 13
    Shares