বুধবার, ডিসেম্বর ২

ভারতের মহারাষ্ট্রেই আক্রান্ত ৫০ হাজার ছাড়াল

এখানে শেয়ার বোতাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ভারতে মহামারি করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত রাজ্যগুলোর মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা মহারাষ্ট্রের। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৩ হাজার ৪১ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্তের পর রাজ্যটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে। একই সময়ে আরও ৫৮ জনের প্রাণহানিতে মোট মৃতের সংখ্যা সেখানে ১ হাজার ৬৩৫।

ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে খ্যাত মুম্বাই হলো মহারাষ্ট্রের প্রাদেশিক রাজধানী। তাই মুম্বাইয়ে আক্রান্ত-মৃত্যু সবচেয়ে বেশি। গত একদিনে আরও ১ হাজার ৭২৫ আক্রান্ত ও ৩৮ জন মারা গেছে সেখানে। এ নিয়ে শুধু মুম্বাইয়ে শনাক্ত রোগীদের মধ্যে ৯৮৮ জন প্রাণ হারিয়েছেন।

মহারাষ্ট্র রাজ্য সরকারের দেওয়া সবশেষ বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘রোববার গোটা রাজ্যে ৫৮ জন করোনায় আক্রান্ত মানুষ মারা গেছে। এরমধ্যে মুম্বাইয়ে ৩৯, পুনেতে ৬, সোলাপুরে ৬, আগ্রাবাদে ৪ এবং লাতুর, মিরা-ভায়ান্দার ও ঠানেতে একজন করে কোভিড-১৯ রোগীর প্রাণহানি হয়েছে।’

টানা এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে মহারাষ্ট্রে প্রতিদিন প্রায় দুই হাজারের বেশি করে মানুষ করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হচ্ছেন। মোট ১৪ হাজার ৬০০ সুস্থ হওয়ার পর রাজ্যটিতে এখন আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত সক্রিয় রোগী ৩৩ হাজার ৯৮৮। সব মিলিয়ে ৩ লাখ ৬২ হাজার ৮৬২ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে সেখানে।

রাজ্যটিতে বর্তমানে ৪ লাখ ৯৯ হাজার ৩৮৭ জন মানুষ হোম কোয়ারেন্টাইনে এবং ৩৫ হাজার ১০৭ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে বলেও বিবৃতিতে জানানো হয়। তবে সংক্রমণ বৃদ্ধির পরও মুম্বাই থেকে ২৫টি অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

গতকাল পর্যন্তও মুম্বাইয়ের বিমানবন্দর ফের চালু করার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত ছিলো না সরকারের। রোববার রাজ্য সরকারের প্রতিমন্ত্রী নওয়াব মালিক এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। তবে রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী উদ্ধভ ঠাকরের মতে, এখনো ফ্লাইট পরিচালনার মতো পরিস্থিতির জন্য তৈরি হয়নি।

উল্লেখ্য, ভারতে গতকাল একদিনে সর্বোচ্চ ৬ হাজার ৭৬৭ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে আক্রান্ত বেড়ে এখন ১ লাখ ৩১ হাজার ৮৬৮। আক্রান্তদের মধ্যে নতুন করে আরও ১৪৭ জনসহ মোট ৩ হাজার ৮৬৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তে বিশ্বের শীর্ষ দশ দেশের একটি এখন ভারত।


এখানে শেয়ার বোতাম