শুক্রবার, ডিসেম্বর ৪

বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন: মামলায় আসামি কালামের স্বীকারোক্তি

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে গৃহবধূকে (৩৫) ধর্ষণ ও বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় আসামি আবুল কালাম আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। ওই ঘটনায় করা ধর্ষণ মামলায় কালাম দ্বিতীয় আসামি।

সোমবার সন্ধ্যায় নোয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম শোয়েব উদ্দিন খান তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। জবানবন্দিতে কালাম ধর্ষণে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। এর আগে ধর্ষণ মামলায় তাকে চার দিনের রিমান্ডে নিলে প্রথম দিনের জিজ্ঞাসাবাদে সে অপরাধ স্বীকার করে এবং আদালতে জবানবন্দি দিতে রাজি হয়। ধর্ষণ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই নোয়াখালীর সিরাজুল মোস্তফা সোমবার রাত ৯টার দিকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

নারীকে নির্যাতন ও ভিডিওচিত্র ভাইরালের ঘটনায় গত ৪ অক্টোবর নির্যাতনের স্বীকার নারী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন এবং পর্নোগ্রাফি আইনে দুটি মামলা করেন। এর দু’দিন পর ৬ অক্টোবর রাতে ওই নারী আরও একটি ধর্ষণ মামলা করেন। এতে স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী ও দেলোয়ার বাহিনী প্রধান দেলোয়ারকে প্রধান ও তার সেকেন্ড ইন কমান্ড আবুল কালামকে দ্বিতীয় আসামি করা হয়।

৪ অক্টোবর নারী নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর দেলোয়ার ও কালাম পালিয়ে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে আত্মগোপনে যায়। ৪ অক্টোবর রাতে দেলোয়ারকে নারায়ণগঞ্জে র‌্যাবের চেকপোস্ট থেকে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যে কালামকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধর্ষণ মামলাটি ২৩ অক্টোবর বেগমগঞ্জ মডেল থানা থেকে পিবিআইতে স্থানান্তর করা হয়।


এখানে শেয়ার বোতাম