শনিবার, মার্চ ৬
শীর্ষ সংবাদ

বুয়েট প্রশাসন আরেকটু সতর্ক হলে হত্যাকাণ্ড ঘটতো না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) আরেকটু সতর্ক হলে ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকাণ্ড ঘটতো না বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের পেছনে নিশ্চই কোনো কারণ আছে। কোনো কারণ ছাড়াই একজনকে এভাবে হত্যা করা হবে তা বিশ্বাসযোগ্য নয়। এর পেছনে কি কারণ থাকতে পারে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব টেক্সটাইলের নবনির্মিত প্রধান ফটক উদ্বোধনকালে গণামধ্যমকে এসব কথা বলেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশাসন ডাক না দিলে তারা ক্যাম্পাসে প্রবেশ করেনা। এ বিষয়ে বুয়েট প্রশাসন আরেকটু সতর্ক হলে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতো না। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে হবে।
তিনি বলেন, আবরার হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের প্রায় সবাইকে আমরা শনাক্ত করেছি ও ধরেছি। এ পর্যন্ত ১৭ জনকে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে একজন ১৬৪ থানায় জবানবন্দি দিয়েছে। আমি আগেও বলেছি, আজও বলছি অত্যন্ত দ্রুততার সঙ্গে এ মামলার চার্জশিট দেওয়া হবে। আশা করছি তদন্ত সংস্থা দ্রুত মামলা তদন্ত সম্পন্ন করবে।

মন্ত্রী বলেন, এ ধরনের মেধাবী ছাত্র যারা কিনা আমাদের ভবিষ্যৎ, যে প্রজন্মকে নিয়ে আমরা অহঙ্কার করি, এ ধরনের ঘটনায় যাতে তারা হারিয়ে না যায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এমন অনেক ঘটনাই ঘটেছে বিশ্ববিদ্যালয়ে। আমরা সনি হত্যাও দেখেছি। কিন্তু এ হত্যাকাণ্ডটি সবার হৃদয়ে দাগ কেটেছে। আমি আশা করবো আমাদের ছাত্র সমাজ এ ধরনের ঘটনা আর দেখবে না। এ ধরনের ঘটনা যেন না ঘটে সেজন্য তারাও সজাগ থাকবে।

আসাদুজ্জামান বলেন, যারা পড়াশুনা করতে আসেন তারা প্রত্যেকই মেধাবী, সেই মেধাবীরাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে। এর পেছনে নিশ্চই কোনো কারণ রয়েছে, আর তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।‘এ খুনের পেছনে কারণটা কী এটা আমাদের দেখতে হচ্ছে। যারা ধরা পড়ছে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে, তদন্ত চলছে, এর পেছনে মোটিভটা কী জানার চেষ্টা চলছে বলেও জানান মন্ত্রী।

উল্লেখ্য, গত ৫ অক্টোবর ফেসবুকে ভারত বিরোধী স্ট্যাটাস দেয়ায় শিবির সন্দেহে ছাত্রলীগের নির্যাতনের শিকার হয়ে প্রাণ হারান বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ। ইতিমধ্যে এ হত্যাকাণ্ডে ১৭ জনকে আটক করেছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আটকদের মধ্যে ১৩ জন ৫ দিনের রিমাণ্ডে আছেন।


এখানে শেয়ার বোতাম