মঙ্গলবার, মার্চ ২
শীর্ষ সংবাদ

বাকিতে না দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর করে কাপড় নিয়ে গেলেন আ.লীগ নেতা

এখানে শেয়ার বোতাম

সিলেট প্রতিনিধি :: সিলেট নগরীর লামাবাজারে বাকিতে না দেয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধোর করে জোরপূর্বক কাপড় ছিনিয়ে নিয়ে গেলেন মোমিন নামের এক আওয়ামী লীগ নেতা। ঘটনার প্রতিবাদে লামাবাজার এলাকার সকল ব্যবসায়ী রাস্তায় অবরোধ করেন। এতে বেশ কিছু সময় ওই এলাকায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় এবং প্রচণ্ড যানজটের সৃষ্টি হয়।

শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) সন্ধ্যার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে বিষয়টি দেখে দেয়ার আশ্বাস দিলে ব্যবসায়ীরা অবরোধ তুলে নেয়।

ব্যবসায়ীদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে মোমিন নামে এক আওয়ামী লীগ নেতা লামাবাজার এলাকাস্থ ‘নিউ টার্গেট’ নামের দোকানে এসে বাকিতে কিছু গেঞ্জি ও টি-শার্ট চান। পূর্বেও মোমিন নামের ওই ব্যাক্তির কাছে টাকা পাওনা থাকায় দোকান মালিক মোর্শেদ আবার বাকিতে কাপড় বিক্রি করতে রাজি হননি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মোমেন দোকান মালিককে মারধোর করে জোরপপূর্বক কাপড়গুলো নিয়ে যান।

বিষয়টি জানাজানি হলে লামাবাজার এলাকার সকল ব্যবসায়ী প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে আসে। এতে কিছু সময়ের জন্য রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে সিলেট কোতোয়ালি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত বিষয়টি দেখে দেয়ার আশ্বাস দিলে ব্যবসায়ীরা অবরোধ তুলে নেয়।

এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর পুলিশে অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) জেদান আল মুসা জানান- ব্যাবসায়িকে মারধোর ও কাপড় ছিনিয়ে নেয়ার খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে আসে। পরে বিষয়টি দেখে দেয়ার আশ্বাস দিলে প্রতিবাদী ব্যবসায়ীরা রাস্তা থেকে সরে যান। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এদিকে মোমিন নামের ওই আওয়ামী লীগ নেতা কাশ্মীর গ্রুপের অনুসারী বলে জানা গেছে। তবে কাশ্মীর গ্রুপে মোমিন নামের কেউ নেই বলে জানিয়েছেন সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি রশিদ আহমদ।


এখানে শেয়ার বোতাম