বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৩

বাউল শিল্পী শরিয়ত বয়াতির মুক্তি দাবি করেছে চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় ইনচার্জ নিখিল দাস এক বিবৃতিতে বাউল শিল্পী শরিয়ত বয়াতির নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছে।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, শরিয়ত বয়াতির পুরো ভিডিও ক্লিপে কোথাও তিনি ধর্মের বিরুদ্ধে বলেননি। তিনি ধর্মব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে বলেছেন। তাই এই স্বার্থান্বেষী চক্র তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এবং সরকার-প্রশাসন মৌলবাদী ধর্মান্ধ গোষ্ঠীর পৃষ্ঠপোষকতার অংশ হিসেবে তাকে গ্রেফতার করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয় তিনি কবি গানের আসরে বলেছেন, ‘গান-বাজনা হারাম কোরানের কোথাও বলা হয় নাই’ তিনি ধর্মব্যবসায়ীদের ‘শালা’ বলেছেন। জামায়াত নেতা ও বক্তা তারেক মনোয়ারকে ‘তারেক জানোয়ার’ বলেছেন। ফলে ধর্মব্যবসায়ীরা তার বিরুদ্ধে ক্ষেপেছে।

বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থাকার প্রয়োজনে ধর্মান্ধ মৌলবাদীদের কাছে আত্মসমর্পণ করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিপরীতে দেশ পরিচালনা করছে বিধায় এটা সম্ভব হচ্ছে। আমরা অতি দ্রুত শরিয়ত বয়াতির মুক্তি দাবি করি। অন্যথায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত জনগণ রাজপথে নামতে বাধ্য হবে।

অপর এক বিবৃতিতে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের অন্যতম ট্রাস্টি, ছায়ানটের নির্বাহী সভাপতি ডা. সারওয়ার আলী ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের হত্যার উদ্দেশে হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে তিনি অবিলম্বে কবিয়াল শরিয়ত বয়াতির নিঃশর্ত মুক্তি এবং ডা. সারওয়ার আলী ও তার পরিবারের উপর হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।


এখানে শেয়ার বোতাম