মঙ্গলবার, মে ১১
শীর্ষ সংবাদ

বরিশালে বাসদের উদ্যোগে এবার ‘মানবতার বাজার’ উদ্বোধন

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 20.6K
    Shares

‘এক মুঠো চাল’ কর্মসূচিে আওতায়

নিজস্ব প্রতিবেদক :: একটি পরিবারের নিত্য প্রয়োজনীয় যে পণ্য দরকার। সেই পণ্য গুলো সারি সারি করে সাজিয়ে গুছিয়ে রাখা হয়েছে। আর সেই পণ্য নিজেদের পরিবারের চাহিদা অনুযায়ী নিচ্ছেন রেশন বই প্রাপ্ত সাধারণ মানুষ। এটি বরিশালে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদের ব্যতিক্রমী ‘মানবতার বাজার’। প্রতিদিনই সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এই ‘মানবতার বাজার’ খোলা থাকবে।

আজ রবিবার (১২ এপ্রিল) সকাল ১১টায় বরিশাল নগরীর বাসদ কার্যালয় সংলগ্ন মাতৃছায়া স্কুল মাঠে এই ‘মানবতার বাজার’ উদ্বোধন করা হয়।

‘মানবতার বাজার’ উদ্বোধন বাসদ বরিশাল জেলার আহবায়ক প্রকৌশলী ইমরান হাবিব রুমন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাসদ বরিশাল জেলার সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী। এসময় ভলান্টিয়ার হিসেবে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, শ্রমিক ফ্রন্ট এবং মহিলা ফোরামের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়তে পারেন : সরকারি ১৬৮ বস্তা চালসহ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আটক

প্রকৌশলী ইমরান হাবিব রুমন বলেন, একটা পরিবারে যা কিছু প্রয়োজন তার বেশিরভাগ পণ্যই আমরা এই বাজারে রেখেছি। আজ চাল, ডাল, আলু, পিয়াজ, তেল, ডিম, টমাটো, মিষ্টি কুমড়া, ঢ়েড়শ, পুঁইশাক, শিশুদের জন্য চকলেট, আচার, চানাচুর, মাস্ক, জরুরী ঔষদ ইত্যাদি দেয়া হয়। প্রতিদিনই আমরা আরও নতুন নতুন পণ্যই আমাদের এই মানবতার বাজারে যুক্ত করবো। আর্থিক সামর্থ্য এবং পরিবারের সদস্য সংখ্যা বিচার করে আমরা প্রত্যেই পরিবারকে একটি রেশন বই প্রদান করা হয় যেখানে আমরা ৪০০/৫০০ পয়েন্ট প্রদান করি, যা দিয়ে ঐ পরিবার বিনামূল্যে প্রায় ৬/৭ শ টাকার বাজার করতে পারে। আমরা চেষ্টা করবো প্রতি সপ্তাহেই প্রতি বইয়ে নতুনভাবে পয়েন্ট যুক্ত করার। আমরা এই সংকটের সময় প্রতিদিনই অন্তত ২০০ পরিবারকে এই সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করবো।

বাসদের সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী বলেন, এই দুর্দিনে মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। সারাদেশেই বাসদের পক্ষ থেকে এধরনের নানান কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। বরিশালে এ পর্যন্ত আমরা ৫ সহস্রাধিক পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছি যা এখনো অব্যাহত আছে। আজ থেকে এক মুঠো চাল কর্মসূচিে আওতায় এই ‘মানবতার বাজার’ থেকে অন্তত ৩ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করবো। এর বাইরে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ‘এক মুঠো চাল’ এর খাদ্য সহায়তা কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। এছাড়াও আমাদের ‘ফ্রি এম্বুলেন্স সার্ভিস’ এ প্রতিদিন গড়ে ১৫/২০ টি পরিবারকে সেবা দেয়া হচ্ছে। এই কর্মসূচিগুলো সফল করতে যারা আর্থিক, নৈতিক, স্বেচ্ছাশ্রম এবং পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করেছেন প্রত্যেকের দায়িত্বশীলতাকে আমরা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি।

আরও পড়তে পারেন : কোভিড-১৯ নিয়ে বাম জোটের সর্বদলীয় পরামর্শ সভা আগামীকাল

কৃষকদের জন্য ৫% সুদে ৫ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা ঘোষণা
করোনায় যুক্তরাজ্যে সুস্থতার হার ০.৪৩%, চীনে ৯৪.৫৪%
করোনা রোগীর চেয়েও ত্রাণের চাল চোর বেশি: রিজভী


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 20.6K
    Shares