বুধবার, জানুয়ারি ২৭

বজ্রপাতে সারাদেশে স্কুলছাত্রসহ চারজনের প্রাণ গেল

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: সারা দেশের চার জেলায় বজ্রপাতে এক স্কুলছাত্রসহ চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন। বৃহস্পতিবার দুপুর ও বিকেলে এসব বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে।

টাঙ্গাইলে মো. অনিক (১৫) নামে নবম শ্রেণির ছাত্রের বজ্রপাতে মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে সদর উপজেলার বাঘিল ইউনিয়নের ধরেরবাড়ী পশ্চিমপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সত্যতা নিশ্চিত করে বাঘিল ইউনিয়ন পরিষদের ধরেরবাড়ী এলাকার ইউপি সদস্য মো. আব্দুল হক বলেন, বাড়ির পাশে ধানখেতে মা-বাবার সঙ্গে অনিক খড় শুকাচ্ছিল। হঠাৎ তার উপর বজ্রপাত হলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় বজ্রপাতে রফিক উল্যাহ নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪জুন) দুপুরের দিকে হাতিয়া উপজেলার স্বর্ণদ্বীপে মাটি কাটার সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই ওই শ্রমিকের মৃত্যু হয় বলে নিশ্চিত করেছেন হাতিয়া থানা পুলিশের ওসি আবুল খায়ের।

তিনি জানান, নিহত রফিক উল্যাহ (৩৮) সুবর্ণচর উপজেলার ৪নং ওয়ার্ডের মধ্য চরবাটা গ্রামের গুল্লালাগো বাড়ির মৃত শফি আলমের ছেলে।

বগুড়ার কাহালুতে বজ্রপাতে মখলেছুর রহমান (৫৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার এরুলিয়া বাজার এলাকায় বোরো ধান বস্তায় তোলার সময় বজ্রপাতে তার মৃত্যু হয়।

এ সময় একই গ্রামের কৃষক রায়হান হোসেন (৩৫), হাসান আলী (৪০) ও মুদি ব্যবসায়ী আল-মামুন (৪২) আহত হন। তাদের স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কাহালু থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম।

এছাড়া জয়পুরহাট সদর উপজেলার পারুলিয়া গণকবাড়ী গ্রামে বজ্রপাতে সুকমল চন্দ্র (৫০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, কৃষক সুকমল বাড়ির পাশে টিউবওয়েলে গোসল করার সময় বজ্রপাতে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।


এখানে শেয়ার বোতাম