বৃহস্পতিবার, মার্চ ৪
শীর্ষ সংবাদ

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের প্রথম ম্যাচে সিলেটকে হারিয়ে চট্টগ্রামের জয়

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: মোহাম্মদ মিঠুনের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে ভর করে ১৬২ রানের সংগ্রহ পায় সিলেট থান্ডার্স। বল করতে নেমে ৬৪ রানে আবার চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের ৪ উইকেট তুলে নেয়। এরপর বাংলাদেশ জাতীয় দলের ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ালটন চট্টগ্রামের হাল ধরেন। তাদের ব্যাটে ভর করে ৫ উইকেটের জয় তুলে নেয় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। বঙ্গবন্ধু বিপিএলের প্রথম ম্যাচ জয়ে রাঙায় তারা।

টস জিতে সিলেটকে প্রথমে ব্যাটিংয়ে পাঠায় চট্টগ্রাম। শুরুতে রনি তালুকদারকে তুলে নিয়ে ব্রেক থ্রুও দেয় চট্টগ্রাম। কিন্তু তিনে নামা মোহাম্মদ মিঠুন উইন্ডিজ ওপেনার জনসন চার্লসকে নিয়ে সেই ধাক্কা সামলে নেন। চার্লস ৩৫ রান করে ফিরে যান। এরপরই ফিরে যান জীবন মেন্ডিস।

তবে মোহাম্মদ মিঠুন ছিলেন অবিচল। তিনি শেষ ওভার পর্যন্ত খেলেন। ৪৭ বলে খেলেন ৮৪ রানের হার না মানা দুর্দান্ত এক ইনিংস। তার ১৭৮.৭২ স্ট্রাইক রেটের ইনিংসে ছক্কা ছিল পাঁচটি। এছাড়া চারটি চার মারেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। তাকে সঙ্গ দিয়ে সিলেটের অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন ২৯ রান করেন। তবে তিনি খেলে ফেলেন ৩৫ বল। না হলে সিলেটের ইনিংস আরও বড় হতে পারতো।

জবাব দিতে নেমে চট্টগ্রামের ওপেনার আভিস্কা ফার্নান্দো ৩৩ রান করে ফিরে যান। তার আগে ব্যর্থ হন জুনায়েদ সিদ্দিক, নাসির হোসেন এবং রায়ান বার্ল। তবে চারে নেমে ইমরুল কায়েস খেলেন ৩৮ বলে পাঁচ ছক্কা ও দুই চারে ৬১ রানের ইনিংস। ওয়ালটস ৩০ বলে ৪৯ রানের হার না মানা ইনিংস খেলে পরে দলকে জয় এনে দেন।

চট্টগ্রামের হয়ে রুবেল হোসেন ৪ ওভারে ২৭ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। নাসির হোসেন কোন উইকেট না পেলেও বেশ কিপটে বোলিং করেন। তিনি ৪ ওভারে খরচা করেন মাত্র ২২ রান। নাশুম আহমেদ এবং রিয়াদ এমরিট একটি করে উইকেট নিলেও ৪ ওভারে খরচা করেন যথাক্রমে ৩৪ ও ৩৮ রান। সিলেটের স্পিনার নাজমুল ইসলাম ৩ ওভারে ২৩ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট।


এখানে শেয়ার বোতাম