শনিবার, মে ৮
শীর্ষ সংবাদ

‘বকেয়া বেতন পরিশোধসহ গার্মেন্টস শ্রমিকদের সবেতন ছুটি দিন’

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 2K
    Shares

অধিকার ডেস্ক:: বকেয়া বেতন পরিশোধসহ গার্মেন্টস শ্রমিকদের সবেতন ছুটি দিয়ে সকল কারখানা বন্ধ করার দাবি করেছেন গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

আজ রোববার (০৫ এপ্রিল) গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় পরিচালনা কমিটির সমন্বয়কারী অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান ইসমাইল, গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরামের সভাপতি মোশরেফা মিশু, সম্পাদক শহীদুল ইসলাম সবুজ, গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতি সভানেত্রী তাসলিমা আক্তার, সম্পাদক জুলহাস নাঈম বাবু, গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মাসুদ রেজা, সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ, গার্মেন্টস শ্রমিক মুক্তি আন্দোলনের সভাপতি শামীম ইমাম, সম্পাদক শবনম হাফিজ, বিপ্লবী গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতির সভাপতি মোস্তাক আহমেদ, গার্মেন্টস শ্রমিক আন্দোলনের সভাপতি বিপ্লব ভট্টাচার্য, জাতীয় সোয়েটার গার্মেন্টস ও ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সভাপতি এএএম ফয়েজ আহমেদ, গার্মেন্টস শ্রমিক সভা সভাপতি শামসুজ্জোহা প্রমুখ নেতৃবৃন্দ এক যুক্ত বিবৃতিতে গার্মেন্টস শ্রমিকদের সবেতন ছুটি ঘোষণাসহ করোনা মহামারী প্রতিরোধে সকল কারখানা বন্ধ ঘোষণার দাবি তোলেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, “করোনা ভাইরাসের কারণে সারা পৃথিবীতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। অথচ, গার্মেন্টস শ্রমিকদের জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে সরকার একটুও ভাবিত নয়। সেকারণেই মালিকশ্রেণি জোরপূর্বক শ্রমিকদেরকে কারখানায় আটকে রাখতে চাইছে। সরকার ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের টাকা আত্মসাৎ করার লক্ষ্যে শ্রমিকদের জীবন-মরণ নিয়ে মালিকেরা রসিকতা করছে। এটা সম্পূর্ণ অমানবিক, শ্রমশোষণের জ্বলন্ত প্রকাশ।

যেখানে সকল প্রকার সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ হয়েছে, সেখানে মালিকেরা এখনও পর্যন্ত শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করেনি। ফলে শ্রমিকদের জীবন অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। আবার তাদেরকে সংক্রমণ থেকে বাঁচাতে সবেতন ছুটিও নিশ্চিত করা হচ্ছে না। সরকার ইতোমধ্যে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত গার্মেন্টস কারখানা বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন। কিন্তু শ্রমিকদের সবেতন ছুটি, বকেয়া বেতন পরিশোধ ও সংক্রমণ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে পারেনি। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাই।”

নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে গার্মেন্টস শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধসহ সবেতন ছুটি দিয়ে করোনা প্রতিরোধে সকল কারখানা বন্ধ ঘোষণা করার জোর দাবি জানান।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 2K
    Shares