শনিবার, মার্চ ৬
শীর্ষ সংবাদ

প্রয়োজনীয় নীতিমালা প্রণয়ন করে ব্যাটারি চালিত রিক্সা ও ইজিবাইকের লাইসেন্স প্রদানের দাবিতে মিছিল

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: প্রয়োজনীয় নীতিমালা প্রণয়ন ও কাঠামোগত পরিবর্তন করে ব্যাটারিচালিত যানবাহনের লাইসেন্স প্রদান, বিকল্প ব্যবস্থা ছাড়া রিক্সা, ব্যাটারিচালিত রিক্সা ও ইজিবাইক উচ্ছেদ বন্ধ ও প্রতিটি সড়ক-মহাসড়কে ছোট যানবাহনের জন্য পৃথক লেন তৈরি করার দাবিতে সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত।

আজ শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘রিক্সা, ব্যাটারিচালিত রিক্সা ও ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ’ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে এই সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

ব্যাটারিচালিত রিক্সা ও ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক খালেকুজ্জামান লিপন ও সদস্য সচিব প্রকৌশলী ইমরান হাবিব রুমন এর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এবং হালকা যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আহসান হাবিব বুলবুল, বরিশাল জেলা নেতা জাহাঙ্গির আলম দিদার, বগুড়া জেলা নেতা আবু রায়হান, খুলনা জেলা নেতা মোহাম্মদ হানিফ, সাভারের মো. শওকত আলী, ঢাকার বাবু হাসান, গাজীপুরের আব্দুল কাইয়ুম, ময়মনসিংহের আইনুল হক, নারায়ণগঞ্জের গুলজার হোসেন প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, পরিবেশবান্ধব, যানজট, দূষণ ও দূর্ঘটনা আধুনিক নগরিই আমাদের কাছে কাম্য। এই সকল শর্ত পূরণ করতে পারে ব্যাটারি চালিত বাহন। কারণ ব্যাটারি চালিত বাহনে কোন ধোয়া না হওয়ায় এটি দূষণমুক্ত এবং পরিবেশ বান্ধব। যানজট নিরসনেও এই রিক্সা কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে। স্বল্প বিদ্যুৎ প্রয়োজন হওয়ায় এর পরিবহন খরচ কম। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এখন ব্যাটারি চালিত যানবাহনের অনুমোদন প্রদান করা হয়েছে। আমরা মনে করি আমাদের দেশের প্রায় ৮০ ভাগ রিক্সা এখন ব্যাটারি চালিত এর পাশাপাশি ব্যাটারি চালিত ইজিবাইকও দেশের একটি অন্যতম প্রধান গণপরিবহনের পরিণত হয়েছে। কিন্তু এসব ব্যাটারি চালিত বাহনের অনুমোদন না থাকায় চালকদের বিভিন্ন হয়রানির সম্মুখিন হতে হচ্ছে। তাই অবিলম্বে ব্যাটারি চালিত যানবাহনের লাইসেন্স প্রদান করে এই সংকট সমাধান এখন সময়ের দাবি।

নেতৃবৃন্দ সড়ক মহাসড়কে ছাট যানবাহনের জন্য পৃথক লেন তৈরি করার দাবি জানান এবং বিকল্প কর্মসংস্থান ছাড়া সারাদেশের কোথাও ব্যাটারি চালিত সকল যানবাহন উচ্ছেদ বন্ধের আহ্বান জানান।


এখানে শেয়ার বোতাম