বুধবার, নভেম্বর ২৫

পুড়ছে আমাজন: ব্রাজিলের দায় ঢাকার চেষ্টা, বলিভিয়া লড়ছে আগুন নেভাতে

এখানে শেয়ার বোতাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: রেকর্ড গতিতে প্রতিদিন পুড়ছে ‘পৃথিবীর ফুসফুস’ খ্যাত অ্যামাজন জঙ্গল। ব্রাজিলের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট ফর স্পেস রিসার্স (আইএনপিই) বলছে,এ বছর জুন পর্যন্ত ব্রাজিলে ৭২ হাজার ৮৪৩টি অগ্নিকাণ্ড হয়েছে। এর মধ্যে অর্ধেকের বেশি আগুনের ঘটনা অ্যামাজন জঙ্গলে, যা আগের বছরের তুলনায় ৮০ শতাংশ বেশি। এসব অগ্নিকাণ্ডের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে দায়ী করা হচ্ছে পশুপালক ও কৃষকদের। ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট অভিযোগ করেছেন, এনজিও সংগঠনের পক্ষ থেকে লাগানো হচ্ছে এসব আগুন।

আমাজনের ব্রাজিল, বলিভিয়া ও প্যারাগুয়ের বিস্তৃত অংশ দাউ দাউ করে জ্বলছে। ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বোলসোনেরো যখন এ অগ্নিকাণ্ডে নিজের নীতির দায় ঢাকার চেষ্টা করছেন, বলিভিয়ার সমাজতান্ত্রিক সরকার তখন সীমিত সম্পদ নিয়ে আগুন নেভাতে ঝাঁপিয়ে পড়েছে।

বলিভিয়া একইসঙ্গে ব্রাজিল এবং প্যারাগুয়েকেও পরিস্থিতি মোকাবেলায় সর্বশক্তি নিয়োগে আহ্বান জানিয়েছে। এবারের অগ্নিকাণ্ডে এরই মধ্যে ২২ অগাস্ট পর্যন্ত চিরহরিত বনাঞ্চলের ৬ লাখ ৫০ হাজারের বেশি হেক্টর জমি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

আগুন নেভাতে বলিভিয়া বোয়িং সুপার ট্যাংকার ৭৪৭ ফায়ার ফাইটার প্লেনের অর্ডারও দিয়েছে। লাতিনের এ দেশটি বলছে, আগুন নেভানোর সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন ওই বিমান এলে আগুন নেভানোর ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ অগ্রগতি হবে।

বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেস তার দেশের জরুরি বিভাগের কর্মীদের সামর্থ্যরে সর্বোচ্চ দিয়ে কাজ করতে নির্দেশ দিয়েছেন। অগ্নিকাণ্ডে কারণ নিয়েও অনুসন্ধান শুরু করেছে তারা।


এখানে শেয়ার বোতাম