রবিবার, মার্চ ৭
শীর্ষ সংবাদ

পুলিশী বাধা অতিক্রম করে জয়পুরহাটে বাম-জোটের জনসভা

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: সারাদেশে লাগাতার কর্মসূচির অংশ হিসেবে, জনগণের দাবি নিয়ে “জয়পুরহাট জেলায়” জনসভা সম্পন্ন করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। জনসভায় পুলিশি বাধা, মাইক ব্যবহার করতে পুলিশ সুপার অনুমতি না দেওয়ায় কেন্দ্রীয় নেতারা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বাম গণতান্ত্রিক জোটের জয়পুরহাট জেলা সমন্বয়ক এম এ রশিদের সভাপতিত্বে জনসভা অনুষ্ঠিত হয় শহরের জিরো পয়েন্টে।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সরকার জনগণের ভাগ্য নিয়ে তামাশা করছে, বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় কৃষি জমি ধ্বংস ও ফসলের ন্যায্য দাম থেকে কৃষককে বঞ্চিত করছে, ফলে দিনে দিনে কৃষক ও কৃষি জমি হারিয়ে যাচ্ছে।ক্ষেতমজুর ও গ্রামীন মজুরদের স্বল্প মজুরির কারণে দৈনন্দীন জীবনে তাদের অভাব অনটন ও স্বাস্থ্যগত ঝুঁকিতে ভুগছে, অবিলম্বে ক্ষেতমজুর ও গ্রামীন মজুরদের ন্যায়্য মজুরি দিতে হবে।

তারা বলেন, হামলা, মামলা, হুলিয়াকে ভয় পাই না, আপনারা মনে করেছেন মাইক নিষিদ্ধ করে জনসভা বন্ধ করা যাবে, তা সম্পূর্ন ভুল ধারণা আপনাদের।

এছাড়াও সভায় বক্তারা নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল বৃদ্ধি, আইন শৃঙ্খলার অবনতির প্রতিবাদ করেন। একইসাথে শ্রমিকের ন্যায়সঙ্গত মজুরি নিশ্চিতের দাবি জানান।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন, বাসদ (মার্ক্সবাদী) জেলা আহবায়ক ওবাইদুল্লাহ মূসা, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) কেন্দ্রীয় নেতা সাইফুল ইসলাম পল্টু, বাসদ (মার্ক্সবাদী) কেন্দীয় সদস্য শুভ্রাংশ চক্রবর্ত্তী, বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য নজরুল ইসলাম, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য আনছার আলী দুলাল ও গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির কেন্দীয় সদস্য লিয়াকত হোসেন প্রমূখ।


এখানে শেয়ার বোতাম