বৃহস্পতিবার, মে ১৩
শীর্ষ সংবাদ

পুলিশী বাধার মুখে ইজিবাইক চালক শ্রমিক ফ্রন্টের স্মারকলিপি প্রদান

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: ইজিবাইক চালকদের সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় নীতিমালা প্রণয়ন ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা, ছোট বাহনের জন্য মহাসড়কে পৃথক লেন, আন্ডার পাস নির্মাণ করা এবং তার পূর্ব পর্যন্ত বিকল্প ব্যবস্থার মাধ্যমে স্বল্পগতির যানবাহন চলাচলের ব্যবস্থা করাসহ বিভিন্ন দাবীতে ইজিবাইক চালক শ্রমিক ফ্রন্ট উত্তরবঙ্গ আঞ্চলিক কমিটির স্মারকলিপি পেশ কর্মসূচিতে দফায় দফায় পুলিশ বাধা প্রদান করেছে।স্মারকলিপি পেশের জন্য বগুড়া পৌর এডওয়ার্ড পার্কের মূল ফটক থেকে সমাবেশ করার জন্য সহস্রাধিক শ্রমিকসহ নেতা কর্মীরা সাতমাথায় গেলে পুলিশের বাধার মুখে পরে মিছিলটি।

অনুমতি না থাকায় সমাবেশ করতে দেয়া হয় নি বলে জানান পুলিশের দ্বায়িত্বশীল কর্মকর্তারা। এদিকে সমাবেশ করতে জোড়াজুড়ি করলে বাকবিতন্ডা ও ধাক্কাধাক্কিতে জড়িয়ে পরে শ্রমিক ও পুলিশ।

পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও সদর সার্কেল সনাতন চক্রবর্তী উপস্থিত হয়ে বিষয়ের সমাধানের চেষ্টা করেন এবং সাতমাথায় মানববন্ধন ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে একটি প্রতিনিধি দল হাইওয়ে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে গিয়ে স্মারকলিপি দিতে যায়।

পরে বগুড়া পৌর এডওয়ার্ড পার্কের জগিং সেন্টার প্রাঙ্গণে আরেকটি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। পুলিশের বাধার মুখে দুই দফায় সমাবেশে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের উত্তরবঙ্গ অঞ্চলের ইনচার্জ ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহসাধারণ সম্পাদক নবকুমার কর্মকারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ইজিবাইক ও অটোরিকশা শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব ও বরিশাল বাসদের আহ্বায়ক ইমরান হাবিব রুমন, বাসদ বগুড়া জেলার আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম পল্টু, রাজশাহী বাসদের সমন্বয়ক ও শ্রমিক নেতা আলফাজ হোসেন, রংপুর বাসদের সমন্বয়ক ও শ্রমিক নেতা আব্দুল কুদ্দুস, দিনাজপুর বাসদের সংগঠক ও শ্রমিক নেতা কিবরিয়া হোসেন প্রমুখ।

শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশের এই বাধার নিন্দা জানিয়ে বক্তারা বলেন, উত্তরাঞ্চলে তেমন কোন শিল্প কারখানা না থাকায় শুধু কৃষির উপর নির্ভর করে এই অঞ্চলের জনগনকে জীবন যাপন করতে হচ্ছে । বেকার সমস্যা সমাধানে কোন কার্যকর পদক্ষেপ না থাকায় বেকার সমস্যা তীব্র । ফলে এ অঞ্চলের আমরা প্রায় লক্ষাধিক ইজিবাইক চালক জীবিকা অর্জনের আর কোন পথ না পেয়ে কখনাে জমি বিক্রি করে , কখনাে ঋণ করে ইজি বাইক কিনে জীবিকা নির্বাহ করে আসছি । কর্ম সংস্থান , কৃষিপণ্য ও যাত্রী পরিবহণে এখন গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করছে ইজি বাইক । সাধারণ নিম্ন আয়ের মানুষ , ছাত্র , নারী ও শিশু এবং বৃদ্ধরাই প্রধানত আমাদের যাত্রী । ইজি বাইক এখন আমাদের কর্ম সংস্থানের একটি গুরুত্বপূর্ণ খাত ।

আটককৃত সকল ইজিবাইক ও থ্রি- হুইলার ছেড়ে দিয়ে ইজি বাইক চালকদের সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় নীতিমালা প্রণয়ন ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা, ছোট বাহনের জন্য মহাসড়কে পৃথক লেন, আন্ডার পাস নির্মাণ করা এবং তার পূর্ব পর্যন্ত বিকল্প ব্যবস্থার মাধ্যমে স্বল্প গতির যানবাহন চলাচলের ব্যবস্থা করা, প্রয়োজনে মহাসড়কে স্বল্প গতির যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণের সময়সীমা নির্ধারণ করা, চালকদের ট্রাফিক আইন, সংকেত সম্পর্কে সচেতন করা সহ কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করে যাত্রী এবং জীবিকার নিরাপত্তা বিধান করা, এবং দিনাজপুরের বড়মাঠ থেকে কান্তনগর পর্যন্ত রোড পারমিশন দেয়ার দাবিতে স্মারকলিপি পেশ করে ইজিবাইক চালক শ্রমিক ফ্রন্ট উত্তরবঙ্গ আঞ্চলিক কমিটি।


এখানে শেয়ার বোতাম