শুক্রবার ‚ ২৩শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ ‚ ৭ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ‚ সকাল ৬:৪৮

Home সারা দেশ পিংকির প্রমাণ করেছেন সুযোগ পেলে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ আর সাফল্য এনে দিবে

পিংকির প্রমাণ করেছেন সুযোগ পেলে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ আর সাফল্য এনে দিবে

মো: শাহিন রেজা :: সর্বক্ষেত্রে সুযোগ দিতে হবে তৃতীয় লিঙ্গের সম্প্রদায়কে বেশ কয়েক বছর আগে কমন জেন্ডার নামে একটি চলচিত্র দেখেছিলাম। এটি মূলত হিজড়া সম্প্রদায়ের জীবন কাহিনি নিয়ে রচিত। বিভিন্ন লেখক চলচিত্রকার হিজড়াদের জীবনী নিয়ে তৈরি করেছে চলচিত্র, রচনা করেছেন বিখ্যাত বই, উপন্যাস।

হিজড়া! অবহেলিত এক সম্প্রদায়ের নাম। গ্রামে কোন সন্তান জন্ম নিলে হিজড়াদের দেখা মেলে। সন্তান নাচিয়ে তারা টাকা বকশিস নেই। রাস্তা, বাস, ট্রেন, দোকান, বাজার থেকে টাকা উঠিয়ে তাদের জীবন পরিচালনা করে। উপর্জনের পথ হিসাবে অনেক সময় তারা পতিতা বৃত্তি পেশার সাথে যুক্ত হয়। ফলে তারা বিভিন্ন সময় আলোচনা সমালোচনার শিকার হচ্ছে। কিন্তু তাদের ও যে স্বাদ, আহ্লাদ, ভালোলাগা, মনের ভিতর সুপ্ত ভালোবাসা আছে তার যেন কোন মূল্য নেই এ সমাজে! শিক্ষা, রাজনীতি, সামাজিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ সহ সমস্ত কিছু থেকে বঞ্চিতই বলাচলে তাদের, কিন্তু সুযোগ পেলে তারাও যে ভালো কিছু করে দেখাতে পারে যার উদাহরণ সাদিয়া আক্তার পিংকী।

গত ১৪ অক্টোবর ঝিনাইদহের কোঁটচাদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া সম্প্রদায়) এই প্রার্থী মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হন। তিনি সরাসরি আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত । সমাজসেবা অধিদপ্তরের তথ্য মতে, হিজড়াদের জন্য ২০১৯-২০ অর্থ বছরে সরকার মোট পাঁচ কোটি ছাপান্না লক্ষ টাকা বারাদ্দ করেছে। ২০১২-২০১৩ অর্থ বছর হতে হিজড়াদের সামগ্রীক উন্নয়নে সরকার একটি পাইলট কর্মসূচি গ্রহণ করে যা চলমান রয়েছে।

তাদের উন্নয়নে আরো কিছু পদক্ষেপ নেওয়া প্রায়োজন:

১. সমাজের কুসংস্কার ও অসচেতনতার জন্য হিজড়ারা বৈষম্যে শিকার হচ্ছে, থাকতে হচ্ছে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন অবস্থায়। তাই জনসচেতনা তৈরি করে পরিবারের সাথে থাকার ব্যবস্থা করতে হবে।

২. শিক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে যার মাধ্যমে তারা কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করতে পারবে এবং ভিক্ষাবৃত্তি পেশা পরিহার করবে।

৩. অনিরাপদ যৌন মিলনের ফলে তারা এইডস এ আক্রান্ত হচ্ছে ও ছড়াচ্ছে। তাই সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবোধ শিক্ষা দেওয়ার মাধ্যমে তাদের পতিতাবৃত্তি পেশা থেকে স্বাভাবিক জীবনে নিয়ে আসতে হবে।

৪. রাজনীতি অর্থনীতি সহ সামগ্রীক কর্মকান্ডে তাদের সম্পৃক্ত করতে হবে।

৫. ব্যাংক ঋণের মাধ্যমে তাদের স্বকর্ম সংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। তাঁতশিল্প, কৃষিকাজ, গার্মেন্টস ইত্যাদির উপর প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তরের ব্যবস্থা করতে হবে।

৬. সামাজিক দৃষ্টি ভঙ্গি বদলিয়ে স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয়, সমাজ, রাষ্ট্র ও কর্মক্ষেত্রে তাদের মূল্যায়ন করার সংস্কৃতি তৈরি করা।

৭. ধর্ম ও সংস্কৃতি চর্চার সুযাগ প্রদান ও পরিবেশ তৈরি করা।

২০১৩ সালে সরকার হিজড়াদের লিঙ্গ পরিচয়কে রাষ্ট্রীয় ভাবে স্বিকৃতি দেয়। আমাদের ও তাদের প্রতি সহনুভূতিশীল হয়ে অধিকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে-ই তাদের সমাজে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। দিতে হবে মেধা ও যোগ্যতা প্রমাণের সুযোগ। পিংকির সাফল্যই প্রমাণ করে সুযোগ পেলে তারাও ভালো কিছু দিতে পারবে দেশকে।

লেখক : প্রাক্তন শিক্ষার্থী, জাহাক্সগীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ

মানব পাচারের অভিযোগে লিবিয়ার নাগরিকসহ গ্রেপ্তার ৬

অধিকার ডেস্ক:: রাজধানীর হাতিরঝিল এলাকা থেকে অবৈধ কর্মকান্ড ও বাংলাদেশের ভিসার শর্ত ভঙ্গের অভিযোগে লিবিয়ার নাগরিক সামির আহমেদ ওমর ফরাজ এবং পল্টন...

মেরিন ড্রাইভে সেনাবাহিনী ও পুলিশের যৌথ টহল: আইএসপিআর

অধিকার ডেস্ক:: কক্সবাজারের টেকনাফে মেরিন ড্রাইভ এলাকায় সেনাবাহিনী ও পুলিশ যৌথ টহল পরিচালনা করবে বলে বৃহস্পতিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর...

ভোলায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, স্কুলসহ ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকশ’ পরিবার

ভোলা প্রতিনিধি:: উজানের ঢল ও পূর্নিমার জোয়ারের প্রভাবে ভোলার নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে পানিতে তলিয়ে গেছে নিচু...

রৌমারী গার্লস স্কুলের প্রধান শিক্ষিকার হাতে গ্রন্থিক প্রকাশনীর ‘একাত্তরের অগ্রদূত’

অধিকার ডেস্ক:: মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের সীমানা থেকে প্রকাশিত একমাত্র হাতে লেখা পত্রিকা অগ্রদুত এর সবগুলো সংখ্যা নিয়ে প্রকাশিত বই ‘একাত্তরের অগ্রদুত” উপহার...
Shares