সোমবার, নভেম্বর ৩০

পাটকল রক্ষা আন্দোলনের গ্রেফতারকৃত নেতৃবৃন্দ জামিনে মুক্ত

এখানে শেয়ার বোতাম

খুলনা প্রতিনিধি:: গত ১৯ অক্টোবর পাটকল রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদ ও বাম গণতান্ত্রিক জোটের ডাকা রাজপথ অবরোধ কর্মসূচিতে খুলনার আটরা শিল্প এলাকায় পাটকলশ্রমিক ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া শ্রমিক ও বাম জোটের ১২ জন নেতা-কর্মী জামিনে মুক্ত হয়েছেন।

আজ (২৯ অক্টোবর) বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে খুলনার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তরিকুল ইসলাম এই আদেশ দেন।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) খুলনা জেলার সভাপতি কমরেড মনোজ দাশ বলেন, “মামলার ১৪ জনের মধ্যে ১২ জনের জামিনের আদেশ দিয়েছেন আদালত। জামিনে মুক্তিপ্রাপ্ত নেতৃবৃন্দ খুলনা জেলার কমিউনিস্ট পার্টি অফিসে এসে সংক্ষিপ্ত মত বিনিময় করে যার যার বাসায় ফিরে গেছেন।”

উল্লেখ্য, গত ১৯ অক্টোবর পুলিশ কর্মসূচি থেকে পাটকল রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদের সদস্য সচিব ও সিপিবি নেতা এস এ রশিদ, যুগ্ম আহ্বায়ক ও বাসদ নেতা জনার্দন দত্ত নান্টু, সিপিবি নেতা মিজানুর রহমান বাবু, শ্রমিকনেতা অলিয়ার রহমান, শ্রমিকনেতা শামশেদ আলম শমশের, ছাত্র ফেডারেশনের নেতা আল-আমিন শেখ, ছাত্র ইউনিয়ন নেতা রবিউল ইসলাম রবিসহ ১৩ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে।

পরে ১৪ জনের নামসহ অজ্ঞাত ২০০/২৫০ ব্যাক্তির বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধারায় অজামিনযোগ্য মিথ্যা মামলা দায়ের করে তাদেরকে কারারুদ্ধ করা হয়।

পরের দিন এর মধ্যে এজাহারভুক্ত ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়। মামলায় জনগণের জানমালের ক্ষতি, ভাঙচুর ও পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগ আনা হয়।

এদিকে বাম গণতান্ত্রিক জোট আজ (২৯ অক্টোবর) বৃহস্পতিবার সারা দেশব্যাপী খুলনায় নেতৃবৃন্দের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহার করা ও রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল বন্ধ করে দেশের সম্পদ লুট করার চক্রান্ত রুখে দেয়ার দাবিতে ‘বন্দিমুক্তি দিবস’ পালন করেছে।


এখানে শেয়ার বোতাম