বুধবার, এপ্রিল ১৪
শীর্ষ সংবাদ

পাটকল চালু ও শ্রমিকদের বকেয়া পরিশোধের দাবিতে খুলনায় শ্রমিক জনসমাবেশ

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 169
    Shares

খুলনা প্রতিনিধি:: রাষ্ট্রীয়ভাবে পাটকল চালু এবং বদলি শ্রমিকদের বকেয়া পাওনা পরিশোধের দাবিতে খুলনায় শ্রমিক জনসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৫ টায় খুলনা মহানগরীর খালিশপুর পিপল চত্বর প্রাঙ্গণে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

জনসভায় সভাপতিত্ব করেন রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল এর বদলী অস্থায়ী দৈনিক ভিত্তিক শ্রমিক ও শ্রমিক কর্মচারী সমন্বয় খুলনা-যশোর আঞ্চলিক কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ ইলিয়াস উর রহমান। জনসভা পরিচালনা করেন মোঃ আলতাফ হোসেন ও নুরুল ইসলাম।

জনসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন পাটকল রক্ষায় সম্মিলিত নাগরিক পরিষদের আহবায়ক এ্যাড. কুদরত-ই-খুদা।

বক্তব্য রাখেন বাম গণতান্ত্রিক জোট ও গণসংহতি আন্দোলন খুলনা জেলা সমন্বয়ক মুনীর চৌধুরী সোহেল,পরিষদের সদস্য সচিব ও বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) কেন্দ্রীয় সদস্য এস এ রশীদ, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) খুলনা জেলা সমন্বয়ক জনার্দন দত্ত নান্টু, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় সদস্য ও খুলনা জেলা সভাপতি মোজাম্মেল হক খান, টিইউসি খুলনা জেলা সভাপতি এইচ এম শাহাদাৎ, শ্রমিক-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় নেতা কাজী মোঃ রুহুল আমিন, শ্রমিক-কৃষক-ছাত্র-জনতা ঐক্য পরিষদ নেতা রুহুল আমিন, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট খুলনা জেলা সভাপতি আবদুল করিম, টিইউসি খুলনা জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম চন্দন, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম খুলনা জেলা সভাপতি কোহিনুর আক্তার কণা, আয়োজক কমিটির উপদেষ্টা খলিলুর রহমান, সিপিবি ফুলতলা উপজেলা নেতা গাজী আফজাল হোসেন, গণসংহতি আন্দোলন খালিশপুর থানা আহবায়ক আলমগীর হোসেন লিটু, সিপিবি খালিশপুর থানা নেতা মিজানুর রহমান স্বপন, শ্রমিকনেতা সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর শামসেদ আলম শমশের, মোঃ আলমগীর হোসেন, নূর মোহাম্মদ, মোশাররফ হোসেন, গাজী হামজা, শামস শারফিন শ্যামন, মিজানুর রহমান, গিয়াস উদ্দিন, বাচ্চু বেপারী, আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।

জনসভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, ২৫টি পাটকল বন্ধের রাষ্ট্রীয় ষড়যন্ত্রের কারণে আজ ৫০ হাজার বদলী-স্থায়ী ও দৈনিকভিত্তিক শ্রমিক কর্মহীন। শ্রমিকদের পাওনা প্রদানের ক্ষেত্রেও সরকার প্রতারণামূলক ব্যবস্থা জারি রেখেছে। এখনো ১৮ হাজার ২ শত বদলী শ্রমিকের বকেয়া পাওনার কোন খবর নেই। ৭ হাজার দৈনিক ভিত্তিক শ্রমিক জানে না তারা আদৌ কোন অর্থ পাবে কি না। শঙ্কা, অনিশ্চয়তা ও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে কলোনী থেকে উচ্ছেদ হওয়া শ্রমিকেরা। নেতৃবৃন্দ বলেন, দৈনিক ভিত্তিক, বদলী, স্থায়ী শ্রমিক, পাটচাষী ও তাদের পরিবার অনেকাংশে জীবনমৃত। শ্রমিক পরিবারের জীবন ও জীবিকা চরম অনিশ্চয়তার দিকে ধাবিত হচ্ছে। তাদের সন্তানদের শিক্ষাজীবন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। হৃদরোগ, স্ট্রোক, হাঁপানী, এ্যাজমা, কিডনী রোগে আক্রান্ত সদস্যদের ওষুধ কিনে দেবার সামর্থ নেই। অথচ অনেক সময় দেশীয় প্রাইভেট চিকিৎসার ওপর আস্থা হারালে মন্ত্রী, সচিব, প্রভাবশালী সংসদ সদস্য, ক্ষমতাভোগী রাজনৈতিক ব্যক্তি সিঙ্গাপুরে ছুটে যায়। এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীও যুক্ত।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সোনালী আঁশই পাটকল শ্রমিকদের এতোদিন বাঁচিয়ে রেখেছিল। শুধু তাই নয়, সোনালী আঁশের আয় রাষ্ট্রের জাতীয় অর্থনীতির মূলচালিকা শক্তিও। বিশ্বব্যাপী সোনালী আঁশের দেশ হিসেবে বাংলাদেশ যে মান ও মর্যাদায় অধিষ্ঠিত ছিল তা আজ ভুলুণ্ঠিত হলো। যারা সোনালী আঁশের স্বপ্ন ও সম্ভাবনাকে ধ্বংস করতে তৎপর তারা ইতিহাসে নব্য মীরজাফর হিসেবে পরিচিতি লাভ করবে। তারা শ্রমিক-কৃষক-জনতার প্রতিরোধে রাষ্ট্রীয় মসনদ থেকে আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হবে। আর যারা সোনালী আঁশের স্বপ্ন ও সম্ভাবনাকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য সংগ্রাম করেছেন,
কারাগারে গিয়েছেন তারা গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকার জন্য ইতিহাসে স্থান পাবেন।

সমাবেশে অবিলম্বে বন্ধ পাটকল চালু এবং রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলে বদলি অস্থায়ী দৈনিক ভিত্তিক শ্রমিকদের যাবতীয় পাওনা এককালীন পরিশোধ ও শ্রমিকদের বকেয়া পাওনা পরিশোধ রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এ পাটকল চালু করার দাবি জানানো হয় সমাবেশে চারদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।
কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- আগামী ৩ মার্চ বুধবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত খালিশপুর শ্রমিক ইনস্টিটিউটের সামনে বিআইডিসি সড়কে মানববন্ধন। আগামী ৮ মার্চ সোমবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত দিঘলিয়ার পথের বাজারে মানববন্ধন। ১৫ মার্চ সোমবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল। মিছিলটি মহানগর দৌলতপুর জুট মিলস গেট থেকে বিআইডিসি সড়ক হয়ে নতুন রাস্তা হয়ে দৌলতপুর বাজার হয়ে বিএল কলেজের সামনে দিয়ে গোল চত্বরে পথসভা মাধ্যমে মিছিল শেষ হবে। আগামী ২৮ মার্চ রবিবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত খুলনা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন।

এছাড়া একই দাবিতে এবং পাটকল রক্ষার্থে বিভিন্ন সংগ্রামী সংগঠন ও সুশীল সমাজের দায়িত্ব পাটকলের বদলি, অস্থায়ী, দৈনিক ভিত্তিক শ্রমিক ও শ্রমিক কর্মচারী সমন্বয় আঞ্চলিক কমিটির মতবিনিময় সভা করা হবে।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 169
    Shares