মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৬

নারায়ণগঞ্জে “ভারত উপমহাদেশের কমিউনিস্ট আন্দোলনের শতবর্ষ শীর্ষক” আলোচনাসভা

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 75
    Shares

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:: সমাজ অনুশীলন কেন্দ্রের উদ্যোগে “ভারত উপমহাদেশের কমিউনিস্ট আন্দোলনের শতবর্ষ শীর্ষক” আলোচনাসভা আজ বিকেল ৩টায় ২নং রেল গেইট বাসদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের সমন্বয়ক রঘু অভিজিৎ রায়ের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় আলোচনা করেন বাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড রাজেকুজ্জামান রতন , বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় নেতামোঃ কিবরিয়া, বিপ্লবী শ্রমিক আন্দোলনের আহবায়ক বিপ্লব ভট্টাচার্য, বাসদের জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির জেলার সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্তী, সমাজ অনুশীলনের বিমল কান্তি দাস।

আলোচকরা বলেন, এ বছর উপমহাদেশের কমিউনিস্ট আন্দোলনের শতবর্ষ উদযাপন হচ্ছে। এই শতবর্ষে অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়েছে শ্রমিক শ্রেণির রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে বহু বিপ্লবী শহিদ হয়েছে, আহত হয়েছে অসংখ্য। কৃষক শ্রমিকসহ শ্রমজীবীদের সকল অংশে কমিউনিস্টরা বিচরণ করেছেন, সংগঠিত করেছেন। জীবন বাজী রেখে লড়াই করেছেন। আমাদের এই ভূখন্ডের ভাষা আন্দোলন , শিক্ষা আন্দোলনসহ মুক্তিযুদ্ধে কমিউনিস্টরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাপালন করেছেন। স্বাধীন বাংলাদেশেও শাসক শোষকদের সকল আক্রমনের বিরুদ্ধে কমিউনিস্টরা রাজপথে লড়াই জারী রেখেছে।

বর্তমানে করোনা ভাইরাসকালে সা¤্রাজ্যবাদ, পূঁজিবাদের অন্তঃসারশূন্যতা জনগণের সামনে উন্মোচিত হয়েছে। এই করোনাকালেও বাংলাদেশে ৪ হাজারের উপরে ধনীর সংখ্যা বেড়েছে। গুম, খুন, নারী ধর্ষণ-নির্যাতন , শ্রমিক ছাাঁটাই, নিত্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। চরম কর্তৃত্ববাদী ফ্যাসীবাদী শাসনে মানুষ বিপর্যস্থ।গণতন্ত্র নির্বাসিত। এমতাবস্থায় ভিন্নতা স্বত্বেও সব বামপন্থি কমিউনিস্টদের ঐক্যবদ্ধ সংগ্রাম গড়ে তুলতে হবে। পূঁজিবাদী
ব্যবস্থা প্রাণ-প্রকৃতি পরিবেশ ধ্বংস করেছে। ধ্বংস করছে মানবিকতা।এই শোষণমূলক পূঁজিবাদী ব্যবস্থাকে উচ্ছেদ করে শ্রমিকশ্রেণির রাষ্ট্র তথা সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র কায়েমের সংগ্রামে এগিয়ে আসার জন্য নেতৃবৃন্দ সবার প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 75
    Shares