শনিবার, ডিসেম্বর ৫

নান্দাইলে ব্যতিক্রম আয়োজন, সাবেক ছাত্র নেতাদের তরুনরা তাদের প্রত্যাশার কথা জানালেন

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: “আমরা ভালোভাবে লেখা পড়া করতে চাই” শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আবরারকে পিটিয়ে হত্যা আমাদের ব্যথিত করে, ব্যথিত করে বুয়েটের সর্বোচ্চ মেধাবী ছাত্রদের বিচারের মুখোমুখি হওয়া এ অবস্থার জন্য কে দায়ী? এমন ধারার রাজনীতি আমাদের প্রত্যাশিত নয়। এমন প্রশ্ন ও প্রত্যাশার কথা জানিয়েছে তরুন শিক্ষার্থীরা তাদের এলাকার সাবেক ও বর্তমান ছাত্র নেতাদের।

বৃহস্পতিবার ( ১৭ অক্টোবর) “সামাজিক সম্প্রীতি ও তারুন্যের কন্ঠস্বর ” শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় নান্দাইল উপজেলার ৪ টি কলেজের শিক্ষার্থীরা তাদের অগ্রজ ছাত্র নেতাদের কাছে এমন প্রশ্ন করেন। উপজেলা পরিষদ হল রুমে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর সহযোগিতায় পিপিজি ( পিস প্রেসার গ্রুপ) নান্দাইল এর আয়োজনে এ সভায় উপস্থিত ছিলেন নান্দাইল উপজেলার বিভিন্ন দলের সাবেক ও বর্তমান ছাত্র নেতৃবৃন্দ।

পিস অ্যাম্বেসডর অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান ফকিরের সভাপতিত্বে ও পিপিজি কো-অর্ডিনেটর অধ্যাপক অরবিন্দ পাল ও দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর এরিয়া কো-অর্ডিনেটর নাজমুল হাসননের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় সরকারি শহীদ স্মৃতি আদর্শ কলেজ, খুররম খান ডিগ্রি কলেজ, সমূর্ত্ত জাহান মহিলা কলেজ, অ্যাডভোকেট আব্দুল হাই কলেজ ও ঘোষপালা ফাজিল মাদ্রাসার প্রায় ৭০ জন ছাত্রছাত্রী অংশগ্রহণ করে।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম রেণু, জামাল আকন্দ, হাফিজুর রহমান রিপন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্র দল উপজেলা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রাসেল, জাতীয় ছাত্র সমাজ উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম ভূইয়া শরীফ, জাসদ ছাত্রলীগের উপজেলা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমরু মিয়া উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। ছাত্রনেতারা “সমৃদ্ধ নান্দাইল” গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

সমূর্ত্ত জাহান মহিলা কলেজের সামান্থা রাজনীতি প্রসঙ্গে সম্প্রতি বুয়েটের আবরারের নৃশংস আচরণ এবং তার মৃত্যুর জন্য দায়ীদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়ানোটাও আমাদের জন্য দুঃখ বয়ে আনে এ রাজনীতি নষ্ট রাজনীতি এ থকে উত্তরণের পথ কি? এমন প্রশ্ন করেন। আলোচনায় তরুণ শিক্ষার্থীরা মাদক, যৌতুক, বাল্য বিবাহ, দূর্ণীতি, সুশাসনের অভাব, সামাজিক নিরাপত্তা, পারিবারিক নৃশংসতা, জঙ্গি বাদের কথা উঠে আসে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সুরক্ষা এবং রাজনৈতিক সহনশীলতা উপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়।
এ উদ্যোগের প্রশংসা এবং আমাদের তরুনদের সুনাগরিক ও সহনশীল হওয়ার প্রেরণা যোগাবে বলে মত প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন অ্যাডভোকেট আব্দুল হাই কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ, সরকারি শহীদ স্মৃতি আদর্শ কলেজের শিক্ষক আসাদুজ্জামান রাসেল, খুররম খান চৌধূরী ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক সাইফ আহমেদ, ঘোষপালা ফাজিল মাদ্রাসার শিক্ষক শাহরিয়ার মীর ও সাংবাদিক নেতা এনামুল হক বাবুল।

পরে যৌতুক না দেয়া এবং নেয়া, মাদকমুক্ত থাকা ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করার প্রতিজ্ঞাপত্র পাঠ করান পিপিজি অ্যাম্বাসেডর অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান ফকির।


এখানে শেয়ার বোতাম