সোমবার, মার্চ ৮
শীর্ষ সংবাদ

দোয়ারাবাজারে ভুয়া মহিলা কবিরাজ আটক

এখানে শেয়ার বোতাম

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নার গাওঁ ইউনিয়নের কাটাখালী বাজারের পাশে ভুয়া মহিলা কবিরাজ পুলিশের হাতে আটক। মঙ্গলবার দুপুরে দোয়ারাবাজার থানা ভারপাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবুল হাসেমের নেতৃত্বে এসআই আবু বক্কর সিদ্দিক সঙ্গিয় ফোর্স নিয়ে ভুয়া মহিলা কবিরাজ ও তার স্বামীকে আটক করেছেন। মহিলা কবিরাজ হলেন,জোসনা বেগম, স্বামী আবেদ আলী। সে মান্নার গাওঁ ইউনিয়নের কাটাখালী গ্রামের বাসিন্ধা।

জোসনা দীর্ঘ ৮ মাস যাবত একটা চক্র তৈরী করে তাদের মাধ্যমে বিভিন্ন এলাকায় মিথ্যা প্রচারণা চালিয়ে আসছে। প্রতারক চক্র প্রচার করে জোসনা ৭ দিন সুরমা নদীর পানি নিচে ছিল সেখান থেকে মাউত্তা তাকে পাটিয়েছে, আবার কোথাও বলেছে জিন্নাতে মমিন তাকে বর করেছে, মানুষের সেবা করার জন্য।

জোসনার কাছে মানুষ আসলেই জটিল ও কঠিন রোগ ভাল হয়। সে অন্ধ বিশ্বাসে হাজার হাজার মানুষ তার বাড়িতে ভীড় জমিয়ে লাখ লাখ টাকা কামিয়ে নিচ্ছে। স্থানীয়রা জানান প্রতিদিন জোসনার বাড়িতে শতশত লোকের আগমন, মিথ্যা প্রচারনা পেয়ে দূর দূরান্ত থেকে মহিলা পুরুষ এসে প্রতারণার স্বীকার হচ্ছে। রোগিরা আরো অসুস্থ্য হয়ে যায়,তবু দিন দিন মানুষের সমাগম বেড়ে চলছে। এব্যাপারে দোয়ারাবাজার থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবুল হাসেম বলেন, ভুয়া মহিলা কবিরাজের সংবাদ পেয়ে তাকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয়কে জানালে তিনি বিষয় টি দেখবেন জানালে আটক কৃত জোসনা ও আবেদ আলীকে পাটিয়েছি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোনিয়া সুলতানা বলেন, ভুয়া মহিলা কবিরাজ ও তার স্বামীকে স্থানীয় ইউপি সদস্য প্রজিত দাশের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে। জোসনা ও তার স্বামী অঙিকার করে বলছে তারা আর কোন দিন ভূয়া কবিরাজী করবে না।এমনকি এই মুহুর্ত থেকে আর কাউকে তার বাড়িতে ভুয়া দোয়া প্রত্যাশীদের ও বাড়িতে আসার সুযোগ দিবে না এই মর্মে অঙিকার করেছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, পান্ডার গাওঁ ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ, মান্নার গাওঁ ইউপি সদস্য প্রজিত দাশ, এলাকার বিশিষ্ট জন ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।


এখানে শেয়ার বোতাম